কোহলির রেকর্ড ভেঙেও সমালোচিত আমলা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৭ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৯

ওয়ানডে ক্রিকেটে ২০১৮ সালটা একদমই ভালো কাটেনি দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান হাশিম আমলার। ১১ ম্যাচ খেলে সেঞ্চুরির দেখা পাননি ১টিও, হাফসেঞ্চুরি করতে পেরেছেন মাত্র ২ বার। বছরজুড়ে করা ৩১৫ রান করতে খেলেছেন মাত্র ২৮ গড়ে।

তবে নতুন বছরের প্রথম ম্যাচেই নিজের চেনা রূপে ফিরেছেন আমলা। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই হাঁকিয়েছেন সেঞ্চুরি, ভেঙেছেন বিরাট কোহলির রেকর্ড, গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। তবু ম্যাচ শেষে প্রশংসার চেয়ে সমালোচনাই বেশি পাচ্ছেন আমলা। কেননা ম্যাচে হেরে গিয়েছে তার দল।

ম্যাচে হাশিম আমলার সেঞ্চুরি ও অভিষিক্ত ফন ডার ডুসেনের ৯৩ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ২৬৬ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় দক্ষিণ আফ্রিকা। যা পরে ইমাম উল হক এবং মোহাম্মদ হাফিজের ফিফটিতে ৫ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখেই টপকে যায় পাকিস্তান।

এ ম্যাচে সেঞ্চুরি করার মাধ্যমে ওয়ানডে ক্রিকেটে ২৭টি সেঞ্চুরি করা দ্রুততম ব্যাটসম্যানের রেকর্ড গড়েছেন আমলা। এতদিন ধরে ১৬৯ ইনিংসে ২৭তম সেঞ্চুরি করা কোহলির দখলে ছিলো এ রেকর্ড। তার রেকর্ড ভেঙে ১৬৭ ইনিংসেই ২৭তম সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন আমলা।

কোহলির রেকর্ড নিজের করে নেয়ার পরে আমলাকে যেখানে প্রশংসাবানে ভাসানোর কথা, সেখানে তাকে নিয়ে সমালচনাই হচ্ছে বেশি। কেননা পুরো ৫০ ওভার খেলে অপরাজিত থাকলেও ১২০ বল খেলে মাত্র ১০৮ রান করেছেন আমলা।

শেষের ১০ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকা করেছে ৭৬ রান। এর মধ্যে ২৬ বল খেলে মাত্র ২৮ রান করতে সক্ষম হয়েছেন উইকেটে সেট হয়ে থাকা আমলা। তার 'স্বার্থপর' ইনিংসের কারণেই দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ২৬৬ রানের বেশি হয়নি- এমনটাই মন্তব্য বিশ্লেষকদের।

কেননা আমলার এই ধীরগতির ইনিংসের কারণে লজ্জার এক রেকর্ডও যে গড়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ওয়ানডে ইতিহাসে প্রথম ইনিংসের নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২ বা তার চেয়ে কম উইকেট খোয়ানোর পর ম্যাচ হারের সংখ্যা ছিলো মাত্র ২টি। পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ হেরেছিল সে দুই ম্যাচ। গতকাল (শনিবার) পাকিস্তানের বিপক্ষে এ রেকর্ডের তৃতীয় দল হিসেবে নাম লিখিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

এসএএস/পিআর