আমিরকে বাদ দিয়েই পাকিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:০৪ পিএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৯

আগে থেকেই আলোচনায় ছিলো মোহাম্মদ আমিরের নাম। ইনজুরি আর অফ ফর্ম তাকে অনিশ্চয়তার মুখে ঠেলে দিয়েছিল। জ্বল্পনা-কল্পনা ছিল, বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবেন তো তিনি! শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপের দলে ঠাঁই মিললো না নন্দিত-নিন্দিত এই পেসারের। তাকে বাদ দিয়েই ঘোষণা করা হয়েছে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দল।

২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারতকে হারিয়ে পাকিস্তান যে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল তার মূল নায়কই ছিলেন মোহাম্মদ আমির। তার গতিময় বোলিংয়ের কাছেই হারতে মানতে বাধ্য হয়েছিল বিরাট কোহলির টিম ইন্ডিয়া। সেই আমিরকেই বাদ দিয়ে দিলো ইনজামাম-উল হকের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তানের নির্বাচক মন্ডলী।

দেশটির বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়াদের মধ্যে আরও দুটি নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। পেসার উসমান সিনওয়ারি এবং আসিফ আলি। সাত নম্বরে আসিফ আলির ধুম-ধাড়াক্কা ব্যাটিং যে কোনো দলের জন্যই ছিল ভয়ঙ্কর। সেই আসিফ আলিরই জায়গা মিললো না দলে।

বিশ্বকাপের দলে সুযোগ না পেলেও মোহাম্মদ আমির পাকিস্তান দলের সঙ্গে যাবেন ইংল্যান্ডে। বিশ্বকাপের আগে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের সঙ্গে এক ম্যাচের টি-টোয়েন্টি, ৫ ম্যাচের ওয়ানডে এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে এক ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবেন তিনি।

বিশ্বকাপের দলে আমিরের অন্তর্ভূক্তি না হওয়াটা অবশ্য খুব বড় কোনো চমক নয়। কারণ, ২০১৭ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর এতটাই বাজে ফর্মের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন যে, সেটা একটা রেকর্ড হয়ে থাকবে। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর প্রায় ১০১ ওভার বল করে মাত্র ৫ উইকেট নিতে পেরেছেন তিনি। যার গড় ৯২.৬০ করে। এই সময়ের মধ্যে সারা বিশ্বব্যাপি অন্তত ৬০০ বল করেছেন এমন বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বাজে পারফরম্যান্স তার।

এপ্রিলের ২৩ তারিখের মধ্যে ১৫ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করার নিয়ম বেধে দিয়েছে আইসিসি। তবে, ২৩ মে পর্যন্ত আইসিসির কোনো অনুমতি না নেয়া সাপেক্ষে দলে পরিবর্তন আনতে পারবে যে কোনো দেশ। আইসিসি মূলতঃ ২৩ এপ্রিল সময় বেধে দিয়েছে তাদের লজিস্টিক সাপোর্ট, হোটেল এবং ফ্লাইটের নানা জটিলতার বিষয়গুলো ঠিক করা জন্যই।

তবে ইংল্যান্ডের সিরিজের জন্য মোহাম্মদ আমির এবং আসিফ আলিসহ মোট ১৭জনকে নিয়েই লন্ডনের বিমানে উঠবে পাকিস্তান। সেই সিরিজে ভালো করতে পারলে হয়তো শেষ মুহূর্তে কপাল খুলে যেতে পারে আমির-আসিফেরও। ফলে হয়তো বিশ্বকাপের দলেও সুযোগ মিলে যেতে পারে তাদের।

পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের বিশ্বাকাপ দল
ফাখর জামান, ইমাম-উল হক, আবিদ আলি, বাবর আজম, শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ হাফিজ (ফিটনেস সাপেক্ষে), সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), সাদাব খান, ইমাদ ওয়াসিম, হাসান আলি, ফাহিম আশরাফ, শাহিন আফ্রিদি, জুনাইদ খান, মোহাম্মদ হাসনাইন এবং হাসির সোহেল।

ইংল্যান্ড সিরিজের জন্য যোগ হবে : মোহাম্মদ আমির এবং আসিফ আলি।

আইএইচএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :