অদ্ভুত কারণে অনুশীলনে যোগ দিতে পারলেন না সৌম্য

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:০৬ পিএম, ০৯ আগস্ট ২০২০

তারা ঈদের আগেই অনুশীলন করেছেন। মাঠে ফেরার তাড়ায় রানিং, জিমওয়ার্ক আর ব্যাটিং প্র্যাকটিসে বেশ ভালো সময়ই কেটেছে মুশফিকুর রহীম, ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুনদের। এনামুল হক বিজয়ও শেষ দিকে যোগ দিয়েছিলেন। তিন পেসার শফিউল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ আর মেহেদি হাসান রানাও নিজেকে ঝালিয়ে নিয়েছেন।

ঈদের ছুটির পর কাল (শনিবার) থেকে শুরু হওয়া ব্যক্তিগত অনুশীলনের প্রথম দিনও যথারীতি উপস্থিত মুশফিক, ইমরুল ও মিঠুন। সূচি এনামুল বিজয়ের আজ (রোববার) অনুশীলনে যোগ দেয়ার কথা ছিল। তার সঙ্গে একদম নতুন করে যোগ হওয়ার কথা ছিল আরও চারজনের।

বিসিবির দেয়া প্র্যাকটিস সূচু অনুযায়ী রোববার প্রথমবার অনুশীলনে নামার কথা ছিল সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান,নআল আমিন হোসেন ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের। এর মধ্যে সৌম্য ছাড়া বাকি সবাই যথাসময়েই মাঠে হাজির। কিন্তু দেখা মেলেনি সৌম্যর।

সবাই সূচি মেনে অনুশীলনে, শুধু নেই সৌম্য। কিন্তু কেন, কী হলো বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যানের? বোর্ড থেকে দুপুর ১২ টা নাগাদ জানিয়ে দেয়া হয়েছে, সৌম্য আজ আর অনুশীলন করবেন না। তিনি সোমবার যোগ দেবেন।

আজ কী কারণে সৌম্য আসতে পারেননি প্র্যাকটিসে? মুঠোফোন আলাপে সৌম্য নিজেই জানিয়েছেন কারণ। জাগোনিউজকে তিনি বলেন, 'শারীরিক বা অন্য কোন সমস্যা নয়। আমার আজ প্র্যাকটিসে যোগ দিতে না পারার কারণ অন্য।'

সৌম্য জানান, 'আসলে অনুশীলনে যোগ দেবো কী করে? আমি তো ঢাকায়ই পৌঁছাতে পারিনি। করোনার ভেতরে ভিড় এড়িয়ে ঢাকা পৌঁছাতেই আমি একদিন দেরি করে আজ (রোববার) সকালে ঢাকার পথে যাত্রা শুরু করেছি। আমি তো সেই সাতক্ষীরা থেকে আসব। ঈদের ছুটির পর শুক্র ও শনিবার প্রচন্ড ভিড় ছিল রাস্তায়। নিজের গাড়িতে করে আসলেও আমার ফেরি পার হয়ে আসা ছাড়া উপায় নেই। সেখানে প্রচন্ড জ্যাম। বহু মানুষের সমাগম। বলতে পারেন, আমি ঐ ফেরির ভিড় এড়াতেই একদিন পর বাড়ি থেকে বের হয়েছি।'

রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা থেকে ঢাকা আসার পথে গাড়িতে বসে জাগোনিউজের সঙ্গে কথা বলার সময় সৌম্য জানান, 'আমার এক নিকট আত্মীয় আমাকে জানালেন, সেই শুক্রবার থেকে ঢাকা ফেরা শুরু হয়েছে। এর ভেতরে শুক্র ও শনিবার ছিল সর্বোচ্চ ভিড়। হাজার হাজার মানুষ ফেরিঘাটে। কাজেই আমি ঐ ফেরির জ্যাম এড়াতে একদিন দেরি করে বাড়ি থেকে যাত্রা করেছি। আশা করছি বিকেলের মধ্যে ঢাকার বাসায় পৌঁছে যাব। রাতটুকু বিশ্রাম নিয়ে সোমবার আশা করছি অনুশীলনে যোগ দেব।'

এআরবি/এসএএস//এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]