১৯৯২ বিশ্বকাপের জার্সি ফিরিয়ে আনল ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৪৫ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২০

১৯৯২ বিশ্বকাপেই প্রথম রঙ্গিন জার্সির প্রবর্তন করে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল তথা আইসিসি। সেবার যে জার্সি পরে খেলেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল, সেই জার্সিই এবার আবার ফিরিয়ে আনলো বিসিসিআই। অস্ট্রেলিয়া সফরেই সেই জার্সি পরে টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে খেলবে বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোং।

মঙ্গলবার শিখর ধাওয়ান টিম ইন্ডিয়ার নতুন জার্সি পরে টুইটারে ছবি পোস্ট করেন। নতুন স্পনসরের লোগো নিয়ে এই প্রথম কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারকে দেখা গেল এই জার্সিতে।

নতুন জার্সি পরা ছবি টুইট করে ধাওয়ান লেখেন, ‘নতুন জার্সি। নতুন প্রেরণা। আমরা তৈরি।’ ২৭ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট সিরিজ। সেই সিরিজে উত্তেজনার পারদ বাড়া শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে নতুন জার্সি পরে অস্ট্রেলিয়াকে আগাম সতর্কতা দিয়ে রাখলেন ‘গব্বর’ খ্যাত ধাওয়ান।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে হয়েছিল ১৯৯২ বিশ্বকাপ। ২৮ বছর পর সেই অস্ট্রেলিয়া মাটিতেই ফিরল টিম ইন্ডিয়ার পুরনো জার্সি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এই জার্সি পরেই ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে মাঠে নামবেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

India-team-1.jpg

শুক্রবার শুরু হবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। আগেই জানা, ১৯৯২ বিশ্বরাপে জার্সির আদলে তৈরি হতে চলেছে টিম ইন্ডিয়ার নতুন জার্সি। সেটাই দেখা গেল ধাওয়ানের টুইটে।

১৯৯২ বিশ্বকাপে সেই গাঢ় নীল রঙের জার্সি, সঙ্গে কাঁধে চারটি রঙের লম্বা দাগ। এই রকম জার্সি পরেই কপিল দেব, শচিন টেন্ডুলকার, রবি শাস্ত্রিরা মাঠে নেমেছিল।

চলতি মাসের শুরুতে বিসিসিআই’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল টিম ইন্ডিয়ার নতুন জার্সি স্পনসরের নাম। নাইকির পরিবর্তে টিম ইন্ডিয়ার নতুন জার্সি স্পনসর হয়েছে এমপিএল স্পোর্টস। বিরাটদের নতুন জার্সিতে রয়েছেন নতুন জার্সি স্পনসরের নামও। এমপিএল স্পোর্টসের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি হয়েছে বিসিসিআইর। সুতরাং, চলতি নভেম্বর থেকে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট দলের জার্সি স্পনসর থাকবে এমপিএল।

আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]