পাকিস্তানি বোলিংয়ে ২২০ রানেই অলআউট প্রোটিয়ারা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৫ পিএম, ২৬ জানুয়ারি ২০২১

১৪ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে এলো দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৪ বছর আগে যারা পাকিস্তান সফর করতে এসেছিল, তারা আজ আর কেউ দলে নেই। কুইন্টন ডি ককের নেতৃত্বে যে দলটি করাচির ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে খেলতে নেমেছে তারা পুরোপুরি নতুন।

যে কারনে পাকিস্তানি বোলারদের সামনে শুরুতেই কোণঠাসা সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২২০ রানে অলআউট হয়ে গেছে তারা। সর্বোচ্চ ৫৮ রান করেন ডিন এলগার এবং ৩৫ রান করেন জর্জ লিন্ডে।

প্রথম টেস্টের প্রথম দিন, আজ টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক। ব্যাট করতে নেমে ডিন এলগার আর এইডেন মারক্রাম ৩০ রানের জুটি উপহার দেন। এ সময় ১৩ রান করে আউট হয়ে যান মারক্রাম।

এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট পড়তে থাকে। ১৭ রান করে আউট হয়ে যান রাশি ফন ডার ডুসেন। ২৩ রান করে আউট হন ফ্যাফ ডু প্লেসি। ১৫ রান করে বিদায় নেন অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক।

এরপর টিকে থাকতে পারেননি ওপেনিংয়ে ব্যাট করতে নেমে দৃঢ়তার প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়ে যাওয়া ডিন এলগার। ১০৬ বল খেলে ৫৮ রান করেন তিনি।

মিডল অর্ডারে নির্ভরতার প্রতীক টেম্বা বাভুমা আউট হয়ে যান ১৭ রান করে। মিডল অর্ডারে কিছুটা প্রতিরোধ গড়েন জর্জ লিন্ডে। ৬৪ বল খেলে তিনি করেন ৩৫ রান। কেশভ মাহারাজ আউট হন কোনো রান না করেই। কাগিসো রাবাদা অপরাজিত থাকেন ২১ রান করে। অ্যানরিখ নর্তজেও আউট হন কোনো রান না করে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ফিরে যান লুঙ্গি এনগিদি, ৮ রান করে।

পাকিস্তানি বোলারদের মধ্যে ৩ উইকেট নেন অভিজ্ঞ স্পিনার ইয়াসির শাহ, ২ উইকেট নেন ৩৫ বছর বয়সে অভিষিক্ত নুমান আলি। শাহিন শাহ আফ্রিদিও নেন ২ উইকেট। ১টি উইকেট নেন হাসান আলি। বাকি দুই ব্যাটসম্যান হলেন রান আউট।

জবাব দিতে নেমে অবস্থা ভালো না পাকিস্তানেরও। ১৫ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে বসেছে তারা। ৯ রান করে আউট হয়ে যান ওপেনার ইমরান বাট। আবিদ আলি আউট হয়ে যান ৪ রান করে। এ রিপোর্ট লেখার সময় ৭.২ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করেছে ১৬ রান।

আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]