এখনই অবসর নয়, ঘরের মাঠে ‘বিদায়’ নেবেন গেইল

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ০৬ নভেম্বর ২০২১

আউট হয়ে মাঠ ছাড়ার সময় দর্শকদের উদ্দেশে ব্যাট উঁচিয়ে ধরা, ড্রেসিংরুমের সামনে সতীর্থদের উষ্ণ অভ্যর্থনা, ম্যাচ শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের দেয়া গার্ড অব অনার- সবকিছু মিলিয়ে মনে হচ্ছিলো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে হয়তো বিদায় জানিয়েই দিলেন ক্রিস গেইল।

তবে ম্যাচ শেষে দ্য ইউনিভার্স বস জানিয়ে দিলেন, এখনই ক্যারিবীয় জার্সি তুলে রাখছেন না তিনি। বরং দেশের মাটিতে বিদায়ী ম্যাচ খেলেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন ক্যারিবীয় দানব। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে লাইভ শো’তে এই কথা বলেছেন তিনি নিজেই।

বিদায়ী ম্যাচ না হলেও, পুরো ম্যাচের আবহটা এমনভাবে চলছিল যেন শেষ ম্যাচই খেলছেন গেইল। বিশেষ করে ফিল্ডিংয়ে নেমে ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে মজা করা, মিচেল মার্শের কাঁধে উঠে যাওয়া কিংবা শেষে গার্ড অব অনার পাওয়া- সবকিছুই মূলত বিশ্বকাপে নিজের শেষ ম্যাচ উপভোগের জন্য করছিলেন গেইল।

তিনি বলেছেন, ‘আমি শেষ ম্যাচটা উপভোগের চেষ্টা করছিলাম। এই বিশ্বকাপটা আমাদের জন্য হতাশাজনক ছিল। ব্যক্তিগতভাবে আমিও ভালো করতে পারিনি। খুব সম্ভবত এটাই আমার সবচেয়ে বাজে বিশ্বকাপ ছিল। তবে এমনটা হতেই পারে। আমি আমার ক্যারিয়ারের শেষ পর্যায়ে চলে এসেছি।’

গেইল আরও যোগ করেন, ‘তবে এখনও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে অনেক কিছু দেওয়ার আছে। আমাদের দলে প্রতিভা রয়েছে। তাই আমি এখন যেটা করতে পারি তা হলো, তাদের সঙ্গে সাপোর্টিং রোল পালন করতে পারি এবং আশা করবো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট অনেক দূর এগিয়ে যাবে।’

ইউনিভার্স বস অবসর না নিলেও, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটিই ছিলো ডোয়াইন ব্রাভোর শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। মূলত তার কথা ভেবেই, সবকিছু এক পাশে রেখে উপভোগের মন্ত্রে উজ্জীবিত ছিলেন গেইল।

তার ভাষ্য, ‘আমরা জানি, আজকে আমাদের একজন কিংবদন্তি ডিজে ব্রাভো খেলাটি ছেড়ে দিলেন। আমি তাই সবকিছু একপাশে রেখে সময়টা উপভোগ করছিলাম। আমি সমর্থকদের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছিলাম, মজা করছিলাম। কারণ এটি বিশ্বকাপে আমার শেষ ম্যাচ।’

বিশ্বকাপে শেষ ম্যাচ, অবসর নয়?- এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে খানিক মজা করে দ্য ইউনিভার্স বস বলেন, ‘দেখুন, আমি তো আরেকটি বিশ্বকাপ খেলতেই চাইবো (অট্টহাসি)। তবে আমার মনে হয় না, তারা আমাকে সেই সুযোগ দেবে (হাসি)। আমার ক্যারিয়ারটা দারুণ ছিল।’

এসময় নিজের ঘরের মাঠ জ্যামাইকায় শেষ ম্যাচ খেলার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি কোনো অবসর ঘোষণা করিনি। তারা আমাকে জ্যামাইকায় একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ করে দেবে। আমি তখন বলে দিবো, সবাইকে সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ। তখন আমি হয়তো ব্রাভোর সঙ্গে যোগ দেবো।’

এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]