নতুন ঠিকানায় যাচ্ছেন সৌরভ গাঙ্গুলী!

জ্যোতির্ময় দত্ত জ্যোতির্ময় দত্ত , পশ্চিমবঙ্গ প্রতিনিধি পশ্চিমবঙ্গ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:৫৬ এএম, ২১ মে ২০২২

খেলোয়াড়ি জীবন থেকেই সবকিছুতে নিজস্বতার ছাপ রেখেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী। তার নামের আগে এমন অনেক অভিধাই যুক্ত করা যায়, যেগুলোর যোগ্য তিনি। ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার এবং ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী ক্রিকেটের মাঠ, পরিবার, দাদাগিরির মঞ্চ কিংবা বিসিসিআইয়ের সভাপতিত্ব- যেন সবকিছুতেই সেরা।

জন্মসূত্রে কলকাতার বেহালা অঞ্চলে পৈতৃক ভিটায় তার শৈশব-কৈশোর কেটেছে। সেখানেই বেড়ে ওঠা। এ মুহূর্তে তিনি বেহালার ২/৬ বীরেন রায় রোডের “মা মঙ্গল চণ্ডী ভবন” বাড়িতে থাকেন। এ বাড়িটিই যেন তার কাছে শান্তির নীড়। যেখানেই থাকুন, এখানে না এলে যেন কিছুতেই ভালো লাগে না। বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমকে সৌরভ নিজেই এমন আবেগভরা কথাগুলো জানিয়েছেন।

আগামী আরও কয়েক বছর (তিন-চার বছর) এ বাড়িতেই থাকছেন সৌরভ। এরপরই বেহালার এ পৈতৃক ভিটা ছেড়ে মধ্য কলকাতার লোয়ার রডন স্ট্রিটে সম্পূর্ণ নিজস্ব বাড়িতে উঠবেন তিনি। এ উদ্দেশ্যে প্রায় ২৬ কাঠা জমির ওপর একটি বাড়ি কিনেছেন তিনি। বাগান-সহ দোতলা এ বাংলোয় স্ত্রী ডোনা গঙ্গোপাধ্যায় এবং কন্যা সানাকে নিয়ে ওঠার পরই সৌরভের ঠিকানা পাল্টে হয়ে যাবে ৮/এ লোয়ার রডন স্ট্রিট।

কলকাতার একটি গুজরাটি পরিবার থেকে এ ঠিকানায় একটি বাংলো বাড়ি কিনেছেন তিনি । সূত্র জানিয়েছে, রেজিস্ট্রেশনসহ বাড়ির হস্তান্তর সম্পন্ন হয়েছে। এ মুহূর্তে বেহালার পৈত্রিক ভিটা থেকে তিনি এখানে এলেলেও আগামী দিনে তিনি এখানেই থাকবেন। ওই ঠিকানায় এ মুহূর্তে যে বাংলোটি রয়েছে সেটি ভেঙে নতুন করে নিজের পছন্দমত স্বপ্নের বাড়ি বানাবেন সৌরভ।

সৌরভ গাঙ্গুলির নিজ দেশের বাইরে লন্ডনেও একটি বাড়ি রয়েছে। এ মুহূর্তে বেহালার “মা মঙ্গল চন্ডী” ভবন ছেড়ে “মা চন্ডী” ভবনে উঠবেন বলেই বিভিন্ন মহলে আলোচনা। নতুন বাড়িটি তিনি কিনেছেন প্রায় ৪২ কোটি টাকা খরচায়। সৌরভ এ বাংলোটি কিনেছেন ব্যবসায়ী অনুপমা বাগরি, তর কাকা কেশব দাস বিয়ানি এবং তার ছেলে নিকুঞ্জ বিয়ানির কাছ থেকে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর, সৌরভ নাকি অনেকদিন ধরেই কলকাতার বিভিন্ন অঞ্চলে পছন্দ মতো জায়গা খুঁজছিলেন। মধ্য কলকাতার অভিজাত এলাকায় পছন্দ মত জায়গা পেতেই আর পিছপা হননি সৌরভ।

এমকেআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]