যেমন হবে বিশ্বকাপের সমাপনী অনুষ্ঠান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৩৮ পিএম, ১৫ জুলাই ২০১৮

দেখতে দেখতে পর্দা নামতে চলেছে রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮-এর। জুনের ১৪ তারিখ জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে যে রঙ লেগেছিল বিশ্ব ফুটবলপ্রেমীদের মাঝে। আজ সেখানে বাজবে বিদায়ের করুণ সুর। এক মাসের টান টান উত্তেজনাপূর্ণ আর অবিশ্বাস্য বিশ্বকাপের ফাইনালে আজ লড়বে ফ্রান্স আর ক্রোয়েশিয়া।

তিনবার ফাইনাল খেলা ফ্রান্স একবার বিশ্বকাপ জিতলেও ক্রোয়েশিয়ার এটাই বিশ্ব আসরে প্রথম ফাইনাল। গ্রুপ পর্বে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিদায়। শেষ ষোলতে আর্জেন্টিনা, স্পেন আর কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের বিদায়ই বোঝাচ্ছে, কতটা আনপ্রেডিক্টেবল ছিল এবারের আসর। অনেকের কাছে তো বিশ্বকাপের আমেজ শেষ প্রিয় দলগুলোর বিদায়ের পরই। তবে প্রকৃত ফুটবলপ্রেমীদের জন্য আজ দিনটা একটু বিশেষ কিছুই। আর শুরুর মত শেষটাও বেশ সফল আর জমকালোভাবেই শেষ করতে চায় রাশিয়া। তো দেখে নেওয়া যাক, কেমন হবে বিশ্বকাপের সমাপনী অনুষ্ঠান...

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিলেন না এবারের আসরের থিম সং 'লিভ ইট আপ' টিমের কেউ। তবে সমাপনী অনুষ্ঠান হবে উইল স্মিথ, এরা এস্ত্রাফি আর নিকি জ্যামকে মধ্যমণি করেই। ম্যাচ শুরু হওয়ার ঠিক আধা ঘণ্টা আগে শুরু হবে এই অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে বেশ ভালোভাবেই ফুটে উঠবে রাশিয়ান সংস্কৃতি।

মঞ্চ মাতাতে দেখা যাবে দক্ষিণ কোরিয়ার বিখ্যাত কে-পপ ব্যান্ড 'ইএক্সও'কে। তাদের পারফর্ম করার এই রাস্তাটা তৈরি করে দিয়েছেন ফুটবল ফ্যানরাই। অনলাইন ভোটে 'বিটিএস-ফেক লাভ'সহ আরও দুটি জনপ্রিয় ব্যান্ড দলকে হারিয়েই ফাইনালে পারফর্ম করার সুযোগ পেয়েছেন তারা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে মিশ্র অনেক প্রতিক্রিয়া থাকায় ওই অনুষ্ঠানের কাউকেই দেখা যাবে না আজ। তবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে না থাকতে পারলেও বিদায়ী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে পেরেই দারুণ খুশি উইল স্মিথ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উইল স্মিথ জানান, 'এটি বিশ্বের বৃহত্তম ক্রীড়া অনুষ্ঠান। যখন আমাকে এই অনুষ্ঠানে থাকার জন্য বলা হল, একবার চিন্তা করিনি আমি। বিশ্বকাপটা সত্যিই জাদুকরী কিছু, বৈশ্বিক এক উন্মাদনা। আর এর একটা অংশ হতে পেরে সত্যিই আমার খুব ভালো লাগছে।'

অনুষ্ঠানের সময়সূচি :

স্থান : লুঝনিকি স্টেডিয়াম, মস্কো
সময় : বাংলাদেশ সময় রাত ৮.৩০ মিনিট
দেখাবে : সনি ইএসপিএন, সনি টেন২, সনি টেন৩
লাইভ দেখা যাবে : সনি লাইভ, এয়ারটেল টিভি, জিও টিভিতে

এসএস/এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]