মেসি + রোনালদো = নেইমার : স্কলারি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ১৩ জুন ২০১৮

ব্রাজিলের পেন্টা জয়ের কান্ডারি ছিলেন তিনি। দলকে খাদের কিনারা থেকে তুলে করেছিলেন চ্যাম্পিয়ন। সেই লুইস ফিলিপে স্কলারি লা নাইকনের কাছে সাক্ষাৎকার দিলেন। কথা বললেন রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার সম্ভাবনা নিয়ে।

বিশ্বের সেরা তিন ফুটবলার মেসি, রোনালদো ও নেইমাররা কেমন করবে, সে সম্পর্কেও অনেক কথা বললেন তিনি...। জাগো নিউজের জন্য তুলে ধরা হলো সে সাক্ষাৎকার।

প্রশ্ন : ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ২০০৪ ও ২০০৮ ইউরো এবং ২০০৬ বিশ্বকাপে আপনার অধীনে খেলেছে। লিওনেল মেসির খেলাও দেখছেন। রাশিয়া বিশ্বকাপে মেসিকে কোথায় রাখতে চান আপনি?

স্কলারি : আমি ক্রিশ্চিয়ানোর সাথে অনেকটা সময় কাটিয়েছি এবং খেলার প্রতি তার ডেডিকেশনের ব্যাপারে আমার গভীর জ্ঞান রয়েছে। মেসির সাথে তুলনা করলে, তার (মেসির) তুলনামূলক প্রকৃতি প্রদত্ত প্রতিভা বেশি। মেসির জন্য ফুটবল খুবই সহজ। সে একজন দারুণ প্রতিভাবান। অন্যদিকে ক্রিশ্চিয়ানোর সর্বোচ্চ ধাপে খেলার জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হয়। সে শারীরিক পরিশ্রম করে। তার বাসাসংলগ্ন একটি জিম রয়েছে। তার সাথে মেসির প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে হলে এগুলো অবশ্যই করতে হবে। তাদের দু’জনের মাঝে একটি পার্থক্য রয়েছে। মেসির জন্য এটা খুবই সহজ, যখন ক্রিশ্চিয়ানো জানে মেসির চেয়ে তার দ্বিগুণ কষ্ট করতে হবে।

প্রশ্ন : মেসির সুবিধা নেয়ার জন্য আর্জেন্টিনা দলের কি করা উচিত?

স্কলারি : মেসিকে পর্যাপ্ত জায়গা দিতে হবে। তাকে মাঠে স্বাধীনতা দিন। কারণ সে জানে, কিভাবে সবকিছু ম্যানেজ করতে হয়। এতে আর্জেন্টিনার লাভ হবে। ২০০২ সালে আমি রোনালদোর ওপর কোন রক্ষণাত্মক দায়িত্ব দেইনি। আমি তাকে স্বাধীনতা দিয়েছিলাম। সে কারণেই আমি রোমারিওকেও দলে নেইনি। কোচের দায়িত্ব হলো, মেসিকে মনের শান্তি দেয়া এবং অন্যদের বোঝানো যে মেসি একা পার্থক্য গড়ে দেবে না।

প্রশ্ন : ২০০২ বিশ্বকাপে ব্রাজিল অনেক সমস্যা নিয়ে বাছাইপর্ব উৎরেছিল এবং পরবর্তীতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। এমন কিছু কি এবার আর্জেন্টিনার সাথে হতে পারে?

স্কলারি : সাম্পাওলি আর্জেন্টিনার দায়িত্ব কঠিন সময়ে নিয়েছিলো এবং সে তার লক্ষ্য পেয়ে গিয়েছে। এলিমিনেটরগুলো বিশ্বকাপ থেকে অনেক আলাদা। আমার জন্য আর্জেন্টিনা শীর্ষ পাঁচ দলের একটা, যারা ফাইনালে যেতে পারে।

প্রশ্ন : যখন আপনি নেইমারকে গত বিশ্বকাপে ইঞ্জুরির কারণে হারালেন, তখন দলের নেইমার নির্ভরতা প্রমাণ হয়ে গিয়েছিল। আপনি কি মনে করেন একই জিনিস আর্জেন্টিনা ও মেসির ক্ষেত্রে হতে পারে?

স্কলারি : হ্যাঁ, তারা মেসির ওপর প্রচুর নির্ভর করে; কিন্তু এটা অনিবার্য। ব্রাজিল বিশ্বকাপে নেইমার আরো চার বছর ছোট ছিলো। সে খুবই তরুণ ছিলো। আর্জেন্টিনার বর্তমান পরিস্থিতি আলাদা। কারণ মেসি এখন আর তরুণ নেই এবং আমি দেখি সাধারণত এ দলটি খুবই অভিজ্ঞতাসম্পন্ন।

প্রশ্ন : এবারের বিশ্বকাপে কি ভালো নেইমারকে দেখা যাবে?

স্কলারি : ঠিক আছে। হ্যাঁ, সে দারুণ একটি ক্লাস তৈরি করে দিতে পারে। ব্রাজিলের এটা দরকার রয়েছে। আমি আশা করবো ২০১৪ সালের চেয়ে সে এবার ভালো করবে। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে তার প্রত্যাবর্তনটি খুবই ভালো ছিলো। নেইমার এমন একজন খেলোয়াড়, যে মেসি ও রোনালদোর সমন্বয়ে গঠিত।

প্রশ্ন : আপনি কি স্পেন ও আর্জেন্টিনার ৬-১ এর ম্যাচটি দেখেছেন? এটা কি কোনো বার্তা রেখে গেল?

স্কলারি : আর্জেন্টিনা সেই ফলাফল থেকে অনেক কিছু শিখতে পারে। এটি এমন একটি জয় যা প্রতি ১০০ বছরে একবার আসে। আমি মনে করি না, এটা আবার হবে। সাম্পাওলি এবং প্রধানত খেলোয়াড়দের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে তারা ব্যাপারটা কিভাবে নিয়েছে। আপনার এখান থেকে শেখার ফায়দাটা নেয়া উচিত এবং কৃতজ্ঞ থাকা উচিত যে এটা একটি প্রীতি ম্যাচ ছিলো।

প্রশ্ন : আপনি পউলিনহোকে চীনে কোচিং করিয়েছেন এবং সে তিতের কাছ থেকে ডাক পেয়েছে। আপনি কি মনে করেন, চাইনিজ ফুটবল মাচেরানোকে এ পর্যায়টি অতিক্রম করতে সাহায্য করবে?

স্কলারি : চায়নিজ ফুটবল উন্নতি করেছে। সেখানে অনেক ভালো ব্রাজিলিয়ানরা রয়েছে। এটা নির্ভর করে মাচেরানো কীভাবে দল এবং লিগটিতে খাপ খাইয়ে নিয়েছে। সে যদি তার কাজের প্রতি সংকল্পবদ্ধ হয়, তাহলে নিশ্চিতভাবেই সাম্পাওলি এর প্রশংসা করবে। সে জায়গা থেকে মাচেরানো নিজেকে বদলাতে পারে তাহলে সে ভালো করে খাপ খাইয়ে নিতে পারবে। এই মানসিকতাটাই পউলিনহোর ছিল। তাই সে ব্রাজিলের জাতীয় দলে আবার ফিরতে পেরেছে।

প্রশ্ন : আমরা বিশ্বকাপে কি দেখবো বলে মনে করেন?

স্কলারি : আমি মনে করি, এটা খুবই ভালো একটি বিশ্বকাপ হবে। এটা কারো জন্যই সহজ হবে না।

প্রশ্ন : ব্রাজিলই একমাত্র দাবিদার নয়! কেন? আর কাকে কাকে আপনি দেখেন?

স্কলারি : আমি নির্দিষ্ট কোনো দাবিদার দেখি না। উদাহরণস্বরূপ যদি দ্বিতীয় রাউন্ডে আর্জেন্টিনা বড় কোন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হয় এবং এটি একটি বাজে দিন হয় তাহলে তাদের বিশ্বকাপ শেষ। বিশ্বকাপ ধারাবাহিকতাকে পুরস্কৃত করে না; বরং ম্যাচের দিন কি হয় তাকে পুরস্কৃত করে। আমি মনে করি আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, ফ্রান্স, স্পেন এবং জার্মানি ফেবারিট।

প্রশ্ন : সাম্পাওলি খুবই আক্রমণাত্মক একটি দলকে নির্বাচিত করেছে এবং তার পরিকল্পনা হচ্ছে আক্রমণে রাজত্ব করা। এটা কি বিশ্বকাপ জেতার জন্যে যথেষ্ট?

স্কলারি : দলে অসমতা থাকতে পারে। ব্রাজিলের দারুণ একটি আক্রমণভাগ এবং শক্তিশালী একটি রক্ষণভাগ রয়েছে। রক্ষণ এবং আক্রমণের সমতাই আপনাকে একটি ভালো বিশ্বকাপ উপহার দেবে।

প্রশ্ন : আপনার জন্য কোনটি শক্তিশালী? ২০০২ এর বিশ্বকাপের আনন্দ নাকি ২০১৪ বিশ্বকাপের ৭-১ এর কষ্ট?

স্কলারি : শক্তিশালী অনুভূতি সবসময়ই সেটি যা একটি দেশকে দারুণ জয় এনে দিতে পারে। তাই সেটা কোরিয়া-জাপানের স্মৃতিই। আমি ৭-১ এর অভিজ্ঞতার কথা অস্বীকার করছি না, যেটা একটি কাঁটার মতো বিঁধেছিল; কিন্তু আমার ক্যারিয়ার সে জন্য ধ্বংস হয়ে যায়নি। মিডিয়া কি বলেছে সেদিকে আমি কর্ণপাত করিনি। আমার জীবন চলেছে।

প্রশ্ন : আপনি জার্মানির সাথে সেই ব্যর্থ ম্যাচটি নিয়ে কি মনে করেন?

স্কলারি : আমাদের শুধু নেইমারই অনুপস্থিত ছিল না, আমরা থিয়াগো সিলভাকেও মিস করেছিলাম। আমরা জার্মানিকে চাপে রাখার চেষ্টা করেছিলাম; কিন্তু জার্মানি অনবদ্য ছিল। তারা শিগগিরই একটি বড় পরিবর্তন এনে ফেলে যা আমরা আর কাটিয়ে উঠতে পারিনি। ফলাফলটি বিধ্বস্তকর ছিল। কিন্তু আমরা যদি ১-০ গোলেও হারতাম তাও ব্যাপারটা একই হত।

ডিকেটি/আইএইচএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]