গণধর্ষণের পর রুপাকে হত্যার মামলায় অভিযোগ গঠন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৮:২৬ এএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৯:০১ এএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭

টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে ঢাকার আইডিয়াল ‘ল কলেজের ছাত্রী জাকিয়া সুলতানা রুপাকে গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় আদালতে মামলার অভিযোগ গঠন হয়েছে। টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বিচারক না থাকায় জেলা ও দায়রা জজ মো. রবিউল হাসান ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক হিসেবে ৫ জনের বিরুদ্ধে বুধবার এ অভিযোগ গঠন করেন। মামলার পরবর্তী তারিখ ও সাক্ষীর জন্য আগামী বছরের ৩ জানুয়ারি দিন ধার্য করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি একেএম মো. নাছিমুল আখতার জানান, বেলা পৌনে ১২টায় আসামিদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ গঠন করা হয়। আসামি পক্ষের আইনজীবীরা আসামিদের অব্যাহতি, মামলার পুনঃতদন্ত ও জামিনের বিষয় নিয়ে তিনটি আবেদন করেন। পরে আবেদনের বিষয়ে আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ছোঁয়া পরিবহনের হেলপার শামীম (২৬), আকরাম (৩৫) ও জাহাঙ্গীর (১৯) এবং চালক হাবিবুর (৪৫) ও সুপারভাইজার সফর আলীর (৫৫) বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও দণ্ডবিধি ৩০২ ধারায় অভিযোগ গঠন করেন।

এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের সহায়তায় ছিলেন বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার টাঙ্গাইল জেলার সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান আজাদ। আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন শামীম চৌধুরী দয়াল ও ঢাকা জজ কোর্টের অ্যাডভোকেট মো. দেলোয়ার হোসেন।

এর আগে ১৩ নভেম্বর এ মামলার চার্জ গঠনের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু আদালতের বিচারক মো. আব্দুল মান্নান ছুটিতে থাকায় পিছিয়ে দ্বিতীয় দফায় ২২ নভেম্বর এ মামলার আসামিদের চার্জ গঠনের দিন ধার্য করেন আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ও অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক আবুল মনসুর মিয়া। তবে আসামি পক্ষের আইনজীবীদের সময় আবেদনের প্রেক্ষিতে এর দিন ফের পিছিয়ে আজ ২৯ নভেম্বর ধার্য করেন আদালতের বিচারক মো. আব্দুল মান্নান।

 

আরিফ উর রহমান টগর/এফএ/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :