ভৈরবে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

উপজেলা প্রতিনিধি ভৈরব (কিশোরগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৫:০৭ পিএম, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, লাঠিচার্জ ও ফাঁকা গুলির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দুপুরে বেগম খালেদা জিয়া সিলেট যাওয়ার পথে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাজারুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বাহার উদ্দিন, ভৈরব উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক তারিকুজ্জামান পানেলকে আটক করেছে পুলিশ। রাস্তায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও পুলিশের কাজে বাধা দেয়ায় তাদেরকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় ওসিসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ঢাকা থেকে সিলেটে যাওয়ার পথে বিএনপির নেতাকর্মীরা শুভেচ্ছা জানানোর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিলে বিক্ষিপ্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে বিএনপির নেতাকর্মীদের ইটপাটকেলে ভৈরব থানা ওসি মোখলেসুর রহমান, তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, সাব ইন্সপেক্টর মাজারুল ইসলাম, সাব ইন্সপেক্টর আজিজ আহত হয়েছেন।

এর আগে গভীর রাতে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে যুবদল নেতা মাসুদকে তার বাড়ি থেকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। একই সময় অভিযান চালিয়ে কুলিয়ারচর রামদী ইউনিয়নের সভাপতি হাজী মজনু মিয়া, যুবদল নেতা গোলাম রসুলকেও আটক করা হয়।

ভৈরব সার্কেলের এএসপি কামরুল ইসলাম জানান, বেগম খালেদা জিয়া ভৈরব অতিক্রমকালে বিএনপির উশৃঙ্খল কর্মীরা পুলিশের কাজে বাধার সৃষ্টি করলে টিয়ারগ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অপরাধে চারজনকে পুলিশ গ্রেফতার করে বলে তিনি জানান।

আসাদুজ্জামান ফারুক/আরএআর/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :