মৃত্যুর আগে মায়ের মোবাইলে মেসেজ পাঠাল ছেলে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৪:৫৮ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৯

ফরিদপুর সদর উপজেলার পদ্মা নদীর তীর সংলগ্ন ধলার মোড় থেকে রাজু মীর (২৬) নামে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত রাজু মীর শহরের ভাটিলক্ষ্মীপুর এলাকার সোহরাব মীরের ছেলে। বৃহস্পতিবার সকালে পদ্মা নদীর ধলার মোড় এলাকা খেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানা পুলিশের ওসি এএফএম নাসিম বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বের হন রাজু মীর। এরপর থেকে নিখোঁজ ছিলেন তিনি। বুধবার রাত ২টার দিকে রাজুর মোবাইল থেকে তার মায়ের কাছে একটি মেসেজ আসে ‘আমার বন্ধু আসিফকে খুঁজলেই আমার খোঁজ পাওয়া যাবে’। এরপর স্বজনরা আসিফ শেখের বাসায় যান। তার হাতে ব্যান্ডেজ দেখে স্বজনদের সন্দেহ হলে পুলিশে খবর দেয়। পরে তাকে আটক করে পুলিশ। এরপর তার কথা মতো বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার পদ্মা নদীর তীর সংলগ্ন ধলার মোড় থেকে রাজুর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওসি আরও বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য রাজুর মরদেহ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার থেকে একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। কি কারণে তাকে হত্যা করা হলো এখনো কিছুই জানা যায়নি।

এদিকে রাজু মীরের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। স্বজনদের দাবি, রাজু মীরকে হত্যা করে নদীতে মরদেহ ফেলে দিয়েছে তারই বন্ধু আসিফ শেখ।

বি কে সিকদার সজল/এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :