বগুড়ার নতুন ইউনিয়ন সুখানপুকুর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৫:০৩ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯

বগুড়া জেলায় আরও একটি ইউনিয়ন বাড়ল। নতুন এই ইউনিয়নের নাম সুখানপুকুর। এটির অবস্থান গাবতলী উপজেলায়। এ নিয়ে বগুড়ায় মোট ইউনিয়নের সংখ্যা দাঁড়াল ১০৯টি। গাবতলীর নেপালতলী ইউনিয়নকে বিভক্ত করে এবং পাশের সোনারায় ইউনিয়নের ৩টি মৌজা সংযুক্ত করে সুখানপুুকুর নামে নতুন ইউনিয়ন গঠন করা হয়েছে। গত ১ ডিসেম্বর নতুন এ ইউনিয়নের বিষয়ে গেজেট প্রকাশ করেছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়।

গাবতলী উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ, ইউপি-১ অধিশাখার একটি পত্রের আলোকে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ আইন) ২০০৯ এর ১১ ধারা এবং ইউনিয়ন পরিষদ সমূহকে বিভক্তিকরণ নীতিমালা, ২০১৩ অনুযায়ী বগুড়া জেলার গাবতলী উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নকে বিভক্ত করে এবং পার্শ্ববর্তী সোনারায় ইউনিয়নের ৩টি মৌজা সংযুক্ত করে সুখানপুুকুর নামে নতুন ইউনিয়ন গঠন করা হয়েছে।

আগে গাবতলী উপজেলায় ইউনিয়ন ছিল ১১টি। নতুন ইউনিয়ন নিয়ে দাঁড়াল ১২টি। বগুড়া জেলায় ১০৮ ইউনিয়নের সঙ্গে নবগঠিত ইউনিয়নের সঙ্গে যোগ হয়ে এখন মোট ইউনিয়ন সংখ্যা হলো ১০৯টি।

নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়নের আওতায় গ্রামগুলো হচ্ছে- চকরাধিকা, সুখানপুকুর, কিশমত কাঁকড়া, কেশবেরপাড়া-১, চামুরপাড়া, নতুরপাড়া, সুখানপুকুর বন্দর, কুড়িরপাড়া, কেশবেরপাড়া-২, পাথারের পাড়া, নিজকাঁকড়া, ধলিরচর, উত্তর সরাতলি, পারকাঁকড়া, ভাঙ্গিরপাড়া, ময়নাতলা, কাজলাপাড়া, নজরারপাড়া, মমিনহাটা, মহিষবাতান, কাশিহাটা, তেলিহাটা, তেলিহাটা মধ্যপাড়া, পাঁচানীপাড়া, নয়াপাড়া, শাহাপাড়া, মাসুন্দি, ত্রিমোহনী-২, ত্রিমোহনী-১, আমতলীপাড়া, খিরাপাড়া, ডঙর, ডিহি ডঙর, চক ডঙর ও সানাইপুকুর।

এ বিষয়ে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি টি এম মুসা পেস্তা জানান, সুখানপুকুর একটি বন্দর এলাকা। সুখানপুুকুরের নামে ইউনিয়ন ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি এলাকাবাসী কৃতজ্ঞ।

বগুড়ার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক সুফিয়া নাজিম জানান, নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়ন বিষয়ে গত গেজেট প্রকাশ হয়েছে। নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়নে সংরক্ষিত ওয়ার্ড রয়েছে ৩টি, সাধারণ ওয়ার্ড ৯টি, ১৬টি মৌজা ও ৩৫টি গ্রাম রয়েছে।

লিমন বাসার/এমবিআর/পিআর