ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে ছাত্রলীগ কর্মীদের গণধর্ষণ, বিএনপির নিন্দা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৫:৫৯ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে ছাত্রলীগ কর্মীদের গণধর্ষণের ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো পৃথক বিবৃতিতে ঘটনায় জড়িত ছাত্রলীগ কর্মীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা।

বিবৃতিতে সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার বলেন, ছাত্রলীগ কর্তৃক সিলেটবাসীর শতবর্ষের ঐতিহ্যের স্মারক এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় আমরা বিস্মিত, লজ্জিত ও বিক্ষুব্ধ। এমন বর্বরতা সভ্য সমাজে মেনে নেয়া যায় না। বর্বর কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ছাত্রলীগ পুণ্যভূমি সিলেটের ইতিহাস ঐতিহ্যের ওপর কলঙ্কের কালেমা লেপন করেছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে এমন কোনো নিকৃষ্ট কর্মকাণ্ড নেই যা ছাত্রলীগ করেনি। তারা এমসি কলেজ ছাত্রাবাস পুড়িয়ে সিলেটবাসীর হৃদয়কে ক্ষত-বিক্ষত করেছে। এর সঠিক বিচার না হওয়ায় সেই ছাত্রাবাসে এবার ছাত্রলীগ স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করেছে। এদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। শুধু তাই নয়, তাদের যারা পৃষ্ঠপোষক তাদেরও বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে কেউ সিলেটের ইতিহাস ঐতিহ্যের ওপর আঘাত করতে না পারে।

সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শামীম সিদ্দিকী যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ৩৬০ আউলিয়ার শাহজালাল (রহ.) ও শাহপরানের (রহ.) স্মৃতিবিজড়িত পুণ্যভূমি সিলেটের এই পবিত্র মাটিকে যারা পৈশাচিক ও বর্বরোচিত ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়ে অপবিত্র করেছে তাদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় নিয়ে আসতে হবে।

ছামির মাহমুদ/এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]