হাসপাতালে পড়ে থাকা অজ্ঞাত মরদেহটি কার?

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি (কালীগঞ্জ) গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ০২ মার্চ ২০২১
ফাইল ছবি

বয়স আনুমানিক ৮৫ কিংবা ৮৬ হবে। মুখভর্তি সাদা দাড়ি। চেয়ারা অনেকটাই রুগণ। বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন। গায়ে সাদা হাফহাতা গেঞ্জি ও একই রঙের লুঙ্গি। এ বর্ণনার একটি মরদেহ গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পড়ে আছে। কিন্তু পরিচয় মিলছে না। নিহত অজ্ঞাত ওই পুরুষ একজন মুসলিম বলে পুলিশ শনাক্ত করেছে।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুল হক।

তিনি বলেন, তার সঙ্গে থাকা কিছু পোটলা দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি একজন ভিক্ষুক। তার পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফরিদ মিয়া জানান, সোমবার (১ মার্চ) সকাল ৯টার দিকে আড়িখোলা রেলওয়ে স্টেশন প্ল্যাটফর্মে অসুস্থ হয়ে পড়েন অজ্ঞাত ওই বয়স্ক লোকটি। সকাল সোয়া ৯টার দিকে এক রিকশাচালক তাকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে চলে যান। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তাকে প্রাথমিক সেবা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেন। রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তিনি আরও জানান, নিহতের পরিচয় না পাওয়ায় ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মরদেহ পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) বিশেষজ্ঞ দল নিহতের আঙুলের ছাপ নিয়ে পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা করবে। পরিচয় না মিললে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামকে মরদেহ দাফনের দায়িত্ব দেয়া হবে। পরিচয় শনাক্ত হলে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মিনহাজ উদ্দিন মিয়া বলেন, সোমবার সকালে কে বা কারা ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে রেখে চলে যায়। পরে তাকে চিকিৎসা দিয়ে কিছুটা সুস্থ করে তোলা হয়। এসময় মুরুব্বির কিছু কথা-বার্তায় বোঝা যায়, তার বাড়ি নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার কোনো এক এলাকায় হবে। তার বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যাসহ শ্বাসকষ্টের সমস্যা ছিল।

আব্দুর রহমান আরমান/এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]