পুলিশের সহযোগিতায় বাবা-মায়ের কোলে ফিরলো মিহান

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৮:৩৩ এএম, ২৯ মে ২০২২

অডিও শুনুন

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের সহযোগিতায় হারিয়ে যাওয়া শিশু মো. মিহান (৯) খুঁজে পেয়েছে তার আপন ঠিকানা। শনিবার (২৮ মে) বিকেলে সকল সাক্ষী প্রমাণের ভিত্তিতে পরিবারের কাছে শিশুটিকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শিশু মো. মিহানের বাবা নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জের কাঞ্চন উত্তরপাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. মনির হোসেন বলেন, আমার ৯ বছর বয়সী সন্তানকে খুঁজে পাচ্ছিলাম না। তার খোঁজে এলাকাজুড়ে মাইকিং করা হয়েছিল। আত্মীয় স্বজনদের বাড়িও খোঁজ খবর নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কোথাও তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে পুলিশ আমার আদরের সন্তানকে খুঁজে দিলেন। তাদের কারণে আমি আমার সন্তানকে কোলে ফিরে পেয়েছি। পুলিশ সদস্যদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার এএসআই উত্তম কুমার সূত্রধর বলেন, শিশুটি কাউকে না জানিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গাড়িতে করে নারায়ণগঞ্জ চলে এসেছিল। পরে এলাকাবাসী বিষয়টি আমাদের ডিউটিরত পুলিশ সদস্যকে জানায় এবং তাকে থানায় নিয়ে আসা হয়। কিন্তু নিখোঁজের বিষয়ে কোথাও কোনো জিডি করা ছিল না। যার কারণে শিশুটির পরিবারের সন্ধান পেতে আমাদের বেশ বেগ পেতে হচ্ছিল। শিশুটি শুধু বলছিল তার বাড়ি রূপগঞ্জ। আর কিছুই বলতে পারছিল না।

তিনি আরও বলেন, শিশুর সেই কথার সূত্র ধরেই আমরা শিশুটিকে নিয়ে রূপগঞ্জে যাই। সারাদিন রূপগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজি করি। এক পর্যায়ে আমরা তার নানার সন্ধান পাই। এরপর নানার সূত্র ধরে তার পরিবারের সন্ধান পাই। সবশেষ বিকেলে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান মোল্লা বলেন, ছেলেটিকে আমাদের কাছে নিয়ে আসার পর সে কোনো নাম ঠিকানা বলতে পারছিল না। তারপর আমরা শিশুটিকে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারলাম তার বাড়ি রূপগঞ্জে। এরপর রূপগেঞ্জ আমার অফিসার পাঠিয়ে সারাদিন খোঁজ করার পর জানতে পারলাম তার বাড়ি রূপগঞ্জের কাঞ্চন উত্তরপাড়া এলাকায়। সেইসঙ্গে তার বাবা মায়ের সন্ধান পাওয়া যায়। পরে তার বাবা মা শিশুটিকে শনাক্ত করে এবং সাক্ষীদের উপস্থিতিতে আমরা তাদের কাছে হস্তান্তর করি।

মোবাশ্বির শ্রাবণ/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]