সৃজিত পেঁচা আর মিথিলা পেঁচানী

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩৭ এএম, ২২ জানুয়ারি ২০২০

সৃজিত পরিচালিত ‘২২ শে শ্রাবণ সিনেমাটি দেখলেই বোঝা যায় কতটা কবিতা ভালোবাসেন তিনি। কবিতাকে উপজীব্য করে থ্রিলার গল্প বলে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন তিনি। বর্তমানে মিথিলাকে নিয়ে বেশ চলছে টোনা টুনির সংসার। নানা ব্যস্ততার ফাঁকেও স্ত্রীকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে উঁকি দিতেও ভোলেন না। মিথিলাও নিয়মিত স্বামীকে নিয়ে নানা মজার পোস্ট দিয়ে থাকেন।

নিজেদের নানা আনন্দের মুহুর্ত ক্যামেরা বন্দি করে প্রকাশ করেন নিজের ফেসবুক, টুইটার কিংবা ইনস্টাগ্রামে। এখন সৃজিত-মিথিলার সময় কাটছে সুকুমার রায়ের ছড়ার মতো। মিথিলার এক টুইট দেখে এমনটাই ধারণা করা যায়। সম্প্রতি সৃজিতের সঙ্গে কয়েকটি ছবি পোস্ট করে তার ক্যাপশনে মিথিলা তুলে দিয়েছেন সুকুমার রায়ের ‘আবোল তাবোল’ বইয়ের ‘প্যাঁচা আর প্যাঁচানি’ ছড়াটি।

নতুন এই দম্পতির ভালোবাসায় মোড়ানো দিনগুলো যেনো মজার এই ছড়াটির মতই। ছড়াটির দিকে নজর দিলেই বোঝা যাবে বিষয়টি। ছড়ার লাইনগুলো এমন- ‘প্যাঁচা কয় প্যাঁচানী,খাসা তোর চ্যাঁচানি, শুনে শুনে আন্মন, নাচে মোর প্রাণমন, মাজা–গলা চাঁচা–সুর, আহলাদে ভরপুর, তোর গানে পেঁচি রে, সব ভুলে গেছি রে, চাঁদমুখে মিঠে গান, শুনে ঝরে দু’নয়ান।’

ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে একটি বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে আছেন সৃজিত-মিথিলা। সালোয়ারে সেজেছেন মিথিলা। সৃজিতের গায়ে লাল পাঞ্জাবি।

বর্তমানে সৃজিত ব্যস্ত তার আগামী ওয়েব সিরিজ ফেলুদা ফেরত আর ছবি দ্বিতীয় পুরুষের প্রচারণা নিয়ে। কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি ও বাংলাদেশের মডেল , অভিনেত্রী মিথিলা বিয়ে করেছেন ৬ ডিসেম্বর। বিয়ের পর সুইজারল্যান্ড আর গ্রিসে হানিমুন কাটিয়ে শ্বশুর বাড়িতেও বেড়িয়ে গেছেন সৃজিত। সব মিলিয়ে বেশ ভালোই কাটছে সৃজিত-মিথিলার সময়।

এমএবি/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]