আবারও শারীরিক অবস্থার অবনতি, সাড়া দিচ্ছেন না সৌমিত্র

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৯ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২০

ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে আবারও। তিনি চিকিৎসায় কোনো সাড়া দিচ্ছেন না। পশ্চিমবঙ্গের গণমাধ্যম এই সময় এমন খবরই প্রকাশ করেছে রোববার (২৫ অক্টোবর)। সেখানে বলা হয়েছে, হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ১৯ দিন কেটে গেলেও অবস্থার উন্নতি হয়নি এই অভিনেতার।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৬ অক্টোবর হাসপাতালে ভর্তি হন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। করোনা জয় করেছেন তিনি। গত সপ্তাহে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলেও দাবি করা হয় তার পরিবারের পক্ষ থেকে। কিন্তু তার স্নায়ুজনিত সমস্যা কাটছিলো না। যা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন চিকিৎসকরা।

এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শও নেয়া হচ্ছে বলে কলকাতার বেলভিউ হাসপাতাল সূত্রে জানানো গেছে।

এই সময় বলছে, অষ্টমীর রাত থেকে শারীরিক অবস্থার অবনতি লক্ষ করা গিয়েছিল। কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালের মেডিক্যাল বোর্ডের চিকিত্সক অরিন্দম কর জানিয়েছেন, আপাতত চিকিত্সায় কোনও সাড়া দিচ্ছেন না প্রবীণ অভিনেতা। টানা ১৯দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিনি। রোববার বেশ কয়েকটি কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার চিন্তাভাবনা নিয়েছেন চিকিত্সকের দল।

গত ৭২ ঘন্টায় অভিনেতার আচ্ছন্নভাব কাটেনি। তাই এখনও সঠিকভাবে কিছু বলা যাবে না। শারীরিক অস্থিরতা থাকলেও চেতনা নেই তার। এজন্য চিকিত্সায় বড়সড় পরিবর্তন আনার পক্ষপাতী চিকিত্সকরা। কোভিড রিলেটেড এনসেফালোপ্যাথির কারণে তিনি রোববারও আচ্ছন্ন অবস্থায় রয়েছেন।

অরিন্দম কর আরও জানিয়েছেন, বিভিন্ন টেস্টের রিপোর্ট হাতে এসেছে। সেই রিপোর্টে স্পষ্ট সৌমিত্রের কোভিড এনসেফালোপ্যাথি ক্রমশ বাড়ছে। ইমিউনোগ্লোবিন ও সটেরয়েড দিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া হলেও কাজের কাজ কিছু হয়নি বলে জানা গেছে। তিনি এও বলেছেন স্টেরয়েড ও অন্যান্য প্রচেষ্টাতেও চিকিত্সায় সাড়া দিচ্ছেন না সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

ফুসফুস ও রক্তচাপ এখনও অবধি ভালোভাবে কাজ করছে। কিন্তু তার বয়স ও কোমর্বিডিটি নিয়ে দুশ্চিন্তা বাড়ছে। ধীরে ধীরে প্লেটলেটের সংখ্যা কমছে। কিন্তু কী কারণে তা নিচের দিকে নেমে যাচ্ছে তা বোঝার চেষ্টা করছেন চিকিত্সকরা।

বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে সৌমিত্রের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বুলেটিনে বলা হয়, সকালে রক্তচাপ বেড়েছিল সৌমিত্রের। অক্সিজেনেরও প্রয়োজন পড়েছিল। তবে চিকিৎসার মাধ্যমে তা নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। তার সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সচল রয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৩৫ সালের ১৯ জানুয়ারি নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরে জন্মগ্রহণ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আমহার্স্ট স্ট্রিট সিটি কলেজে সাহিত্য নিয়ে পড়াশোনা করেন।

১৯৫৯ সালে তিনি প্রথম সত্যজিৎ রায়ের পরিচালনায় অপুর সংসার ছবিতে অভিনয় করেন। সত্যজিতের ৩৪টি সিনেমার ভেতর ১৪টিতে অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

সিনেমা ছাড়াও তিনি বহু নাটক, যাত্রা এবং টিভি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন। অভিনয় ছাড়া তিনি নাটক ও কবিতা লিখেছেন, নাটক পরিচালনা করেছেন। তিনি একজন আবৃত্তিকারও।

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]