বাংলাদেশে রেকর্ডসংখ্যক হলে চলছে জিৎ-মিমির প্রথম সিনেমা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১৯ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০২১

দীর্ঘদিন পর সাফটা চুক্তির মাধ্যমে কলকাতার সুপারস্টার জিতের নতুন সিনেমা মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশে। এ তারকার ভক্তদের জন্য সুখবরই বটে। জিৎ অভিনীত ‘বাজি’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে গতকাল শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর।

এই সিনেমা দিয়ে প্রথমবারের মতো জুটি হয়ে পর্দায় হাজির হলেন জিৎ ও অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। এটি নির্মাণ করেছেন অংশুমান প্রত্যুষ।

ছবিটি রোববার (১০ অক্টোবর) সিনেমাটি পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পেয়েছে। আর গতকাল থেকে বাংলাদেশের ৪৪টি সিনেমা হলে দেখা যাচ্ছে ‘বাজি’। যা একটির রেকর্ডের জন্ম দিয়েছে। চলতি বছরে দেশের সবচেয়ে বেশি হলে মুক্তি পাওয়া সিনেমা এখন এটি।

জানা গেছে, ছবিটির মুক্তিতে বেশ আনন্দিত হল মালিকরা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে আনন্দ সিনেমা হলের এক কর্মচারী বলেন, ‘করোনা আসার পর থেকেই ব্যবসা বলতেই কিছুই নাই। লোক আসে না সিনেমা দেখতে। একটা বড় সিনেমার দরকার ছিলো। দেশের বড় বাজেটের সিনেমাগুলো মুক্তি পায় না।

তাই বিদেশের ছবি আনতে হয়। জিৎ খুব জনপ্রিয় বাংলাদেশে। কাল তার ‘বাজি’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে। ভালো দর্শক এসেছে। আরও বাড়বে আশা করা যায়।’

চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড সূত্রে জানা যায়, গেল ৩ জুন বাংলাদেশে মুক্তির জন্য সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে ‘বাজি’। আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান তিতাস কথাচিত্রের কর্ণধার আবুল কালাম জানান, এই সিনেমাটি গত কোরবানি ঈদেই মুক্তি দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির অবনতির কারণে সম্ভব হয়নি। কলকাতাতেও মুক্তি দেয়া হয়নি।

‘বাজি’ সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া তেলেগু ভাষার অ্যাকশন-থ্রিলার সিনেমা ‘নানাকু প্রেমাথু’র রিমেক হিসেবে। যেখানে অভিনয় করেছিলেন জুনিয়র এনটিআর ও রাকুল প্রীত সিং। ছবিটির কলকাতা ভার্সনে অভিনয়ের পাশাপাশি এটি প্রযোজনাও করেছেন জিৎ নিজে।

এদিকে সাফটা চুক্তিতে ‘বাজি’র বিনিময়ে কলকাতায় মুক্তি পাচ্ছে হাবিবুর রহমান হাবিব পরিচালিত ‘রাত্রির যাত্রী’। ২০১৯ সালে মুক্তি পাওয়া এ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন আনিসুর রহমান মিলন ও মৌসুমী।

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]