ফের বিশ্ব নেতাদের তীব্র সমালোচনা করলেন গ্রেটা থানবার্গ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪১ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২০

সুইজারল্যান্ডসের দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) সম্মেলনে আবারও বিশ্ব নেতাদের তীব্র সমালোচনা করে ভাষণ দিয়েছেন কিশোরী জলবায়ুকর্মী গ্রেটা থানবার্গ। মঙ্গলবার দাভোসে দেয়া ভাষণে বিশ্ব নেতাদের স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, আমাদের বাড়ি-ঘর এখনও জ্বলছে।

১৭ বছর বয়সী সুইডিশ এই জলবায়ু আন্দোলনকর্মী বলেন, আপনাদের নিষ্ক্রিয়তা প্রতি মুহূর্তে আগুনের শিখায় জ্বালানি জোগাচ্ছে। এবং আমরা সবাই আপনাদের এমন কাজ করতে বলেছি, যাতে মনে হয় সবকিছুর ঊর্ধ্বে উঠে আপনার সন্তানকে ভালোবাসছেন।

জলবায়ু আন্দোলনের ক্ষুদে এই কর্মী গত সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিবেশ নীতির সমালোচনা করে আলোচনায় আসেন। তার ডাকেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে লাখ লাখ মানুষ জলবায়ু আন্দোলন শুরু করে। গত বছর বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিন ক্ষুদে এই জলবায়ু আন্দোলনকর্মীকে পারসন অব দ্য ইয়ার ঘোষণা করে।

টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সম্মেলনে ভাষণ দিয়েছেন গ্রেটা থানবার্গ। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের ভাষণে অনুষ্ঠানে আগত বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে গ্রেটা বলেন, আমি অবাক হয়ে যাই, আপনাদের এই ব্যর্থতার কারণ হিসেবে সন্তানদের কাছে কি জবাব দেবেন? জেনেশুনে কীভাবে তাদের জলবায়ু বিশৃঙ্খলার মধ্যে রেখে যাবেন?

৮ মিনিটের ভাষণের শুরুতে গ্রেটা বলেন, এক বছর আগে আমি দাভোসে এসেছিলাম এবং সেই সময়ও আমি বলেছিলাম, আমাদের ঘর এখনও পুড়ছে। আমি বলেছিলাম, আমি আপনাদের মাঝে আতঙ্ক তৈরি করতে চাই। আমাকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে যে, জলবায়ু সঙ্কটের ব্যাপারে মানুষকে আতঙ্কিত করা সহজ, কিন্তু কিছু করা কঠিন।

বিকল্প জীবনধারার প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে সুইডিশ এই কিশোরী বলেন, তবে দুশ্চিন্তা করবেন না, ঠিক আছে। যখন আমরা শিশুরা আপনাদের আতঙ্কিত হওয়ার কথা বলছি, তখন আপনাকে আগের মতো করে চলতে বলছি না। আমরা আপনাকে পুরোপুরি প্রযুক্তির ওপর নির্ভরশীল হতে বলছি না।

দাভোসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেয়া ১ ট্রিলিয়ন গাছ লাগানোর প্রতিশ্রুতির সমালোচনা করে গ্রেটা বলেন, অবশ্যই বৃক্ষরোপণ করা ভালো। কিন্তু প্রয়োজনের তুলনায় এটি খুবই নগন্য। এটা প্রকৃতির ক্ষতিপূরণ কিংবা আসল প্রতিস্থাপন হতে পারে না।

জলবায়ু আন্দোলনের এই কর্মী বলেন, আমরা ২০২১, ২৯১৫০ কিংবা ২০৬০ সালে পরিবর্তন চাই না...আমরা এখনই এই পরিবর্তন চাই। সুতরাং হয় এখনই আপনাকে এটা করতে হবে নতুবা আপনার সন্তানদের কাছে ব্যাখ্যা দিতে হবে কেন আপনি দেড় ডিগ্রি টার্গেট পূরণ করতে ব্যর্থ হলেন।

সুইডেনের এই কিশোরী বিশ্ব পরিবেশ আন্দোলনকারীদের অনুপ্রেরণা দিয়ে যাচ্ছেন। গত বছরে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে আবেগঘন এক বক্তৃতা দেন তিনি। বক্তৃতায় বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে বারবার তাকে বলতে শোনা যায়, আপনাদের সাহস কত? সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘে তার এই ভাষণের পর বিশ্বজুড়ে লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে আসেন। কিশোরী গ্রেটা থানবার্গ নিউইয়র্কে আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন।

সূত্র : রয়টার্স, ওয়াশিংটন পোস্ট।

এসআইএস/জেআইএম