দুই বছরে মাত্র ১৫০০ ডলার কর দিয়েছেন ট্রাম্প : নিউইয়র্ক টাইমস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২৩ এএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এই নির্বাচনে প্রার্থী থাকছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেটে ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেনের মুখোমুখি হবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এরই মধ্যে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে করফাঁকির অভিযোগ আনল যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী দৈনিক দ্য নিউইয়র্ক টাইমস।

পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৬ ও ২০১৭-এই দুই বছরে ৭৫০ করে মাত্র ১৫০০ ডলার কর পরিশোধ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। আর ২০১৭ সালে নির্বাচনে জিতে হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করেন তিনি।

ট্রাম্প ও তার কোম্পানির করফাঁকি-সংক্রান্ত একটি নথি নিউইয়র্ক টাইমসের হাতে এসেছে। ওই নথির বরাত দিয়ে পত্রিকাটি বলছে, ওই নথিতে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার কোম্পানির দুই দশকের কর-সংক্রান্ত তথ্য রয়েছে। এতে দেখা যায়, বিগত ১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছরে কোনো করই দেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

তবে করফাঁকি-সংক্রান্ত যে নথি নিউইয়র্ক টাইমসের হাতে এসেছে, তাকে ‘ভুয়া’ বলে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

রোববার এই তথ্য প্রকাশ করেছে নিউইয়র্ক টাইমস। এই প্রতিবেদনকে ‘ভিত্তিহীন’ আখ্যায়িত করে ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে আমি কর পরিশোধ করেছি। আপনারা দেখবেন, যখনই আমি ট্যাক্স রিটার্ন জমা দিয়েছি তখনই এটা অডিটে গেছে। অনেক দীর্ঘ সময় নিয়ে এগুলো অডিট হয়েছে।’

‘আইআরএস (ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিস) আমার সঙ্গে ভালো আচরণ করছে না…তারা আমার সঙ্গে খুব বাজে আচরণ করছে। আপনি দেখবেন, সেখানে এমন অনেক লোক আছে যারা আমার সঙ্গে বাজে আচরণ করে’ যোগ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদন বলছে, নিজের সম্পদ ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত নথি প্রকাশ্যে না আনায় আইনি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যদিও দেশটির আইন অনুযায়ী ট্রাম্প এ-সংক্রান্ত নথি প্রকাশ্যে আনতে বাধ্য নন, তারপরও তিনিই হলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কোনো প্রেসিডেন্ট (১৯৭০ সালের পর) যিনি তার ট্যাক্স রিটার্ন জনসম্মুখে আনতে অনিচ্ছুক।

নিউইয়র্ক টাইমস বলছে, তারা এমন সূত্র থেকে ট্রাম্পের করফাঁকির তথ্য পেয়েছেন, যাদের এ-সংক্রান্ত জানার আইনানুগ অধিকার রয়েছে।

আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। ওই নির্বাচনকে সামনে রেখে বুধবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেট। এ ডিবেটে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখোমুখি হবেন ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন।

সূত্র : বিবিসি

এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]