নির্বাচিত হলে মার্কিনিদের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেবেন বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৪ পিএম, ২৪ অক্টোবর ২০২০

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হলে যুক্তরাষ্ট্রের সব নাগরিককে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন। আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে জোরেসোরে প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা।

এবারের নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো অংশ নিচ্ছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি নিজেও বলেছেন যে, করোনার ভ্যাকসিন সবার জন্য বিনামূল্যে হওয়া উচিত। যদিও প্রথম থেকেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হওয়ায় সমালোচনার মুখে রয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

শুক্রবার এক ঘোষণায় ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন বলেন, তিনি যদি প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন তবে সব মার্কিনির জন্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন বিনামূল্যে দেবেন। করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় জাতীয় কৌশলের অংশ হিসেবে এই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে আক্রমণ করতেও ছাড়েননি। তার মতে, রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করা ছেড়ে দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকেই এ বিষয়টিকে তেমন একটা গুরুত্ব দেয়নি ট্রাম্প প্রশাসন। এমনকি নিজে করোনায় আক্রান্ত হয়েও এ বিষয়ে লোকজনকে সতর্ক করার বদলে উল্টো করোনাকে ভয় না পাওয়ার কথা বলেছেন ট্রাম্প।

তবে তার চেয়ে ব্যতিক্রমী জো বাইডেন। তিনি সব সময়ই বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে মাস্ক পরা এবং জনসমাগম এড়িয়ে চলেছেন। তিনি বলেন, আমরা যদি একটি নিরাপদ ও কার্যকরী ভ্যাকসিন হাতে পাই তবে তা সবাইকে বিনামূল্যে দিতে পারব।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ১১ দিন আগে করোনা মহামারি নিয়ে তার পরিকল্পনার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে এই ঘোষণা দিলেন বাইডেন।
তবে বাইডেনের সঙ্গে শেষ বিতর্কে ট্রাম্প ইঙ্গিত দেওয়ার চেষ্টা করেছেন যে, যুক্তরাষ্ট্র এই মহামারি কাটিয়ে উঠতে পেরেছে।

কিন্তু গত তিনদিনে যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। গত শুক্রবার দেশটিতে নতুন করে আরও ৮৩ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তার আগে বৃহস্পতিবার দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৭৭ হাজার ৬৪০ জন। এদিন সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে আরও ৯২১ জনের।

এনবিসি নিউজের দেয়া তথ্যমতে, এর আগে গত ২১ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ৭৫ হাজার ৭২৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছিল। অর্থাৎ গত তিনদিন ধরেই সংক্রমণ একের পর এক রেকর্ড করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে ২ লাখ ২৯ হাজার ২৮৪ জন। তবে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৫৬ লাখ ৯৮ হাজার ১৬১ জন। দেশটিতে করোনার অ্যাক্টিভ কেস ২৮ লাখ ১৯ হাজার ৫০৮ এবং আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে ১৬ হাজার ৩২৩ জন।

টিটিএন/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]com