যমজ দুই বোনকে বিয়ে করলেন এক যুবক, ভিডিও ভাইরাল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩২ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

বাবার মৃত্যুর পর অসহায় মা ও দুই বোনের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন অতুল নামের এক যুবক। মায়ের অসুস্থতার সময় বারবার নিজের গাড়িতে করে হাসপাতালে নিয়ে গেছেন। তাছাড়া বিভিন্নভাবে দুই বোন পিঙ্কি ও রিঙ্কির দিকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন অতুল।

স্বাভাবিকভাবেই অতুলের সহৃদয়তায় মন দিয়ে বসেন যমজ দুই বোন। তবে এটা নিয়ে দুই বোনের মধ্যে কোনো গন্ডগোল হয়নি, কেউ কারও জন্য ভালবাসার ত্যাগও করেননি, বরং অতুলকে একসঙ্গে বিয়ে করলেন দুই বোন। আর তাদের বিয়েতে সমর্থন জানিয়েছে দুই পরিবার। অভিনব এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ে।

 Two sisters, both IT professionals, from Mumbai marry same man from Akluj village in Solapur, Maharashtra. pic.twitter.com/xsTAaGhNAt

— Nakshab (@LocalBabaji) December 4, 2022

জানা গেছে, মহারাষ্ট্রের সোলাপুর জেলার মালশিরাস তালুকের বাসিন্দা অতুল। মুম্বাইয়ে তার ট্রাভেল এজেন্সির ব্যবসা রয়েছে। আর মুম্বইয়ের বাসিন্দা পিঙ্কি ও রিঙ্কি। যমজ এই দুই বোন বাণিজ্যনগরীরই তথ্য-প্রযুক্তিরকর্মী। তাদের বাবার মৃত্যুর পর মা অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অতুলের থেকেই গাড়ি নিতেন পিঙ্কি ও রিঙ্কি।

এ জন্যই অতুলের সঙ্গে তাদের পরিচয়। ধীরে-ধীরে তাদের মধ্যে পারিবারিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গাড়ি ভাড়া দেওয়ার পাশাপাশি যমজ ওই দুই বোনের পাশে এসে দাঁড়ান অতুল। নানাভাবে তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। আর তার এই সহৃদয়তায় অতুলকে মন দিয়ে বসেন দুই বোনই।

ছোট থেকে একসঙ্গে বড় হয়েছেন পিঙ্কি ও রিঙ্কি। বিয়ের পরেও তারা একসঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তবে দুজনেই যে একজনকে মন দিয়ে বসবেন, তা বোধহয় কেউ কখনো ভাবেননি। তবে যখন তারা জানতে পারলেন যে তাদের ভালবাসার মানুষ একজনই, তখন দুজনেই অতুলকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। তাদের সিদ্ধান্তে অমত করেননি পিঙ্কি-রিঙ্কির মা এবং অতুলের পরিবারও। ফলে একেবারে রীতি-রেওয়াজ মেনে গাঁটছড়া বেঁধে, ৩৬ বছর বয়সী অতুলের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন পিঙ্কি ও রিঙ্কি।

একই ব্যক্তির সঙ্গে দুই বোনের সাতপাকে বাঁধা পড়ার ভিডিও বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল। নেটিজেনদের একাংশ যেমন এই বিয়ে নিয়ে মিম করতে ব্যস্ত, তখন অনেকেই অতুলকে ‘ভাগ্যবান’ বলছেন।

কেউ লিখেছেন, ছেলেটির ভাগ্য দেখে হাঁসবো না কাঁদব, ভেবে পাচ্ছি না। আবার কেউ দুই বোনের পারস্পরিক বিশ্বাস ও ভালবাসাকে ‘স্যালুট’ জানিয়েছেন।

যদিও আইনের কাছে পার পায়নি যমজ বোনের ভালবাসা। হিন্দু বিবাহ আইন অনুসারে, কোনো ব্যক্তির প্রথম স্ত্রী জীবিত থাকাকালীন দ্বিতীয় বিয়ে করা যায় না। সুতরাং, দুই বোনকে বিয়ে করা নিয়ে অতুলের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

ভারতীয় ৪৯৪ ধারা অনুসারে অতুলের বিরুদ্ধে অকলুজ থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। তাহলে কি পিঙ্কি বা রিঙ্কির ভালবাসার মানুষের স্বীকৃতি বাতিল হবে? কারও কাছে জবাব নেই। গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে অকলুজ থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

এমএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।