স্ট্রোক-হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি আগাম জানাবে যে রক্ত পরীক্ষা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:১৪ পিএম, ২৪ মে ২০২২

মাত্র একটি রক্তপরীক্ষা করালেই চার বছরের জন্য স্বাস্থ্য নিয়ে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন। বর্তমানে কমবয়সীদের মধ্যেও বাড়ছে স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাটের ঝুঁকি। এবার স্ট্রোক অথবা হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ৪ বছর আগেই জানতে পারবেন আপনার ঝুঁকি কতটা।

১১ হাজার অংশগ্রহণকারীদের উপর করা এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, রক্তে প্রোটিন পরিমাপই অন্তত ৪ বছর আগে জানান দেবে আপনার স্ট্রোক অথবা হার্ট ফেলিওরের ঝুঁকি আছে কি না। কলোরাডোর এক মার্কিন সংস্থা গবেষণাটি পরিচালিত করেছে।

মূলত রক্তে উপস্থিত ট্রোপোনিন প্রোটিনের মাত্রার উপর নির্ভর করে হৃদযন্ত্রের পেশির স্বাস্থ্য। এতে কোনো রকম প্রদাহ তৈরি হলে রক্তে ট্রোপোনিনের পরিমাণ বেড়ে যায়। হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি নির্ধারণের ক্ষেত্রে ট্রোপোনিন বায়োমার্কার হিসেবে কাজ করে। যার উপর ভিত্তি করেই এই রক্ত পরীক্ষার ফলাফল নির্ধারণ করা হয়।

এই পরীক্ষার ফলাফলের স্বচ্ছতা নিয়েও বিজ্ঞানীর ১০০ শতাংশ নিশ্চিত। সম্প্রতি গবেষণাটি ‘সায়েন্স ট্রান্সলেশনাল মেডিসিন জার্নালে’ প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলে হয়েছে, গবেষণাটির উদ্দেশ্য ছিল একটি প্রোটিওমিক প্রগনোস্টিক পরীক্ষা তৈরি করা, যা স্ট্রোক ও হার্ট ফেলিওর সম্পর্কে আগাম সতর্কতা প্রদান করে।

বিজ্ঞানীরা ২২ হাজার ৮৪৯ জনের রক্তের নমুনা থেকে ৫ হাজার প্রোটিন পরিমাপের ভিত্তিতে ২৭টি বিশেষ ধরনের প্রোটিনকে শনাক্ত করেছে যা হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক বা এমনকি হার্ট ফেইলিওরের ৪ বছর আগেই জানান দিতে পারে।

গবেষণার প্রধান বিজ্ঞানী স্টিফেন উইলিয়ামস দ্য গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানান, এই পরীক্ষার মাধ্যমে একজন ব্যক্তির কি উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন, কোন ধরনের চিকিৎসা অথবা ওষুধ তিনি খাচ্ছেন, কী কী পরিবর্তন জীবনযাত্রায় আনা প্রয়োজন তার একটা আভাস পাওয়া যাবে।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

জেএমএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]