ইসি কর্মকর্তাদের নির্বাচন বহির্ভূত কাজে সম্পৃক্ততে অনুমতি লাগবে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৯ এএম, ০৫ এপ্রিল ২০১৮
ইসি কর্মকর্তাদের নির্বাচন বহির্ভূত কাজে সম্পৃক্ততে অনুমতি লাগবে

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের অনুমতি ছাড়া কোন কর্মকর্তা/কর্মচারিকে নির্বাচন বহির্ভূত কাজে সম্পৃক্ত করা যাবে না। সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাঠ প্রশাসন সংস্থাপন অধি শাখার উপসচিব ড. ফারুক আহাম্মদ স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত নির্দেশনায় এ কথা বলা হয়েছে।

জানা গেছে, নির্দেশনাটি সকল বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এ বিষয়ে মন্ত্রী পরিষদ সচিবের কাছে চলতি বছরের ১১ মার্চ একটি চিঠি দিয়েছেন।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন ও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। নির্বাচন কমিশনের আওতাধীন মাঠ পর্যায়ে কর্মরত কর্মকর্তা/কর্মচারিরা রাষ্ট্রের জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম যেমন- জাতীয় সংসদ, সিটি কর্পোরেশন, জেলা পরিষদ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনসহ জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, স্মার্ট কার্ড বিতরণ, ভোটার তালিকা প্রণয়ন, হালনাগাদ ইত্যাদি কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন।

আইন অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন সচিবালয় কোন মন্ত্রণালয়/বিভাগ/দফতরের অধীন নয়। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিবের দায়ী থাকবেন এবং সচিবের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের আওতাধীন মাঠ পর্যায়ের কোন কর্মকর্তা/কর্মচারিকে অন্য কোন স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সংযুক্ত/কোন কাজে অন্তর্ভূক্ত করা আইনানুগ হবে না বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

সম্প্রতি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় থেকে বাউফল উপজেলা নির্বাচন অফিসারকে ট্যাগ অফিসার হিসেবে নিয়োগ করা হলে অযাচিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় এবং তাকে দুদকের মামলায় হাজতে যেতে হয়।

ফলে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের অনুমতি ব্যতিরেকে কোন কর্মকর্তা/কর্মচারিকে নির্বাচন এখতিয়ার বহির্ভূত কোন কাজে সংযুক্ত/অন্তর্ভুক্ত না করার বিষয়ে আদেশ জারি করে সকলকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হলো। ইসি সচিবের ওই চিঠির প্রেক্ষিতে গত ২১ মার্চ মাঠপর্যায়ে এ নির্দেশনা পাঠিয়েছে মন্ত্রণালয়।

এইচএস/আরএস/আরআইপি