হজরত মুসা আলাইহিস সালামের দোয়া


প্রকাশিত: ০৯:০৪ এএম, ০২ নভেম্বর ২০১৫

হজরত মুসা আলাইহিস সালাম তাঁর শৈশবকাল থেকে যৌবন পর্যন্ত ফিরাউনের রাজপ্রাসাদেই কাটিয়েছিলেন। তাঁর অনিচ্ছাতেই এক কিবতি তাঁর হাতে মৃত্যু বরণ করেন। ফলে তিনি সেখান থেকে পলায়ন করে। তুর পাহাড়ের রিসালাতের পূর্বে আর রাজপ্রাসাদে ফিরে যাননি। এদিকে ফিরাউন দুশ্চরিত্র, অহংকারী ও কঠোর হৃদয়ের অধিকারী ছিল। গর্ব ও অহংকার এতই বৃদ্ধি পেয়েছিল যে, সে তার প্রজাদের বলে দিয়েছিল যে, তোমারদের খোদা আমিই। তৎকালীন সময়ে ধন সম্পদ, সৈন্য সামন্তে এবং জাঁকজমকে সারা দুনিয়ায় তার সমতূল্য আর কেউই ছিল না। তাকে হিদায়াত করার জন্য আল্লাহ তাআলা হজরত মুসা আলাইহিস সালামকে নির্দেশ দিলেন। তখন হজরত মুসা আলাইহি সালাম আল্লাহর সাহায্য কামনায় এ দোয়া করেছিলেন। যা তুলে ধরা হলো-

رَبِّ اشْرَحْ لِيْ صَدْرِيْ وَ يَسِّرْلِيْ أَمْرِيْ وَ احْلُلْ عُقْدَةً مِنْ لِسَانِيْ يَفْقَهُوْا قَوْلِيْ
উচ্চারণ : রব্বিশরাহলি ছদরি, ওয়া ইয়াসসিরলি আমরি, ওয়াহলুল উক্বদাতাম মিল লিসানি, ইয়াফক্বাহূ ক্বওলি।
অর্থ : ‘হে আমার প্রতিপালক! আমার বক্ষ প্রশস্ত করে দাও এবং আমার কাজ সহজ করে দাও। আমার জিহ্বার জড়তা দূর করে দাও যাতে তারা আমার কথা বুঝতে পারে।’ (সুরা ত্বাহা : আয়াত ২৫-২৮)
পাশাপাশি তার সাহায্যকারীর জন্যও দোয়া করেন-

وَ اجْعَلْ لِيْ وَزِيْراً مِنْ أَهْلِيْ هَارُوْنَ أَخِيْ اشْدُدْ بِهِ أَزْرِيْ وَ أَشْرِكْهُ فِيْ أَمْرِيْ
উচ্চারণ : ওয়াঝআললি ওইযরাম মিন আহলি, হারুনা আখিশদুদবিহি আযরি, ওয়া আশরিকহু ফি আমরি।’
অর্থ : ‘আমার জন্য আমার স্বজনদের মধ্য থেকে একজন সাহায্যকারী করে দাও আমার ভাই হারূনকে, তার দ্বারা আমার শক্তি সুদৃঢ় কর ও তাকে আমার কাজে অংশী কর।’ (সুরা ত্বাহা : আয়াত ২৯-৩২)

সুতরাং এ ফিতনা ফাসাদের যুগে আমরা আল্লাহর শিখানো ভাষায় পয়গাম্বরদের বাস্তবজীবনের আমলি দোয়াগুলোর ওপর আমল করার তাওফিক চাই। আল্লাহ আমাদের উক্ত আয়াতের ওপর আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

জাগো ইসলামে লেখা পাঠাতে ই-মেইল : [email protected]

জাগোনিউজ২৪.কমের সঙ্গে থাকুন। কুরআন-হাদিস মোতাবেক আমলি জিন্দেগি যাপন করে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করুন। আমিন, ছুম্মা আমিন।

এমএমএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]