এক কথাতেই সাবেকদের তোপে বাবর আজম

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪৬ পিএম, ২২ মে ২০২০

পাকিস্তানের অধিনায়ক হওয়া এত সহজ কাজ! সমালোচনা সইতে হবে, খারাপ করলে পদত্যাগের দাবিও উঠবে। তবে বাবর আজম তো এখনও ওয়ানডে অধিনায়কত্ব শুরুই করলেন না। এরই মধ্যে কি না সাবেকদের তোপের মুখে পড়ে গেলেন!

আসলে ওয়ানডে নেতৃত্ব পাওয়ার পর ভার্চুয়াল এক কনফারেন্সে ইংরেজি বলার দক্ষতা নিয়ে কথা উঠেছিল। যেখানে বাবর রাখঢাক না রেখেই বলে দেন, ‘আমি তো লাল চামড়ার মানুষ নই যে ইংরেজি ভালো বলতে পারব।’

বাবর অবশ্য মানছেন, আন্তর্জাতিক অধিনায়ক হতে হলে ইংরেজি জানাটাও জরুরি। তিনি শেখার চেষ্টা করছেন বলেও জানান। পাকিস্তানি অধিনায়ক বলেন, ‘আমি এটা নিয়ে কাজ করছি। তবে আস্তে আস্তেই সব শেখা হয়, রাতারাতি তো আপনি কিছু শিখে ফেলতে পারবেন না।’

বাবরের এমন কথা ভালো লাগেনি পাকিস্তানের সাবেকদের। শোয়েব আখতার, রশিদ লতিফের মতো সাবেক ক্রিকেটাররা ২৫ বছর বয়সী এই পাকিস্তান অধিনায়কের অ্যাপ্রোচের সমালোচনা করলেন কর্কশভাবেই।

বাবর ইমরান খানের মতো অধিনায়ক হতে চান, সেই প্রসঙ্গ টেনে শোয়েব বলেন, ‘বাবর আজম ইমরান খানের মতো অধিনায়ক হতে চায়, সেটা শুধু খেলার দিকে হলেই হবে না। তোমাকে ইমরান খানের বইয়ের পাতা থেকে ব্যক্তিত্বটাও নিতে হবে।’

রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস যোগ করেন, ‘দয়া করে এমন কথা বলো না যেটা আমরা গত ১০ বছর ধরেই জানি। আমরা এসব কথা শুনতে চাই না। বাবরকে তার যোগাযোগের দক্ষতা, ব্যক্তিত্ব, সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয়ার ক্ষমতা, ফিটনেস ইত্যাদিও বাড়াতে হবে। আমার মনে হয়, তাকে অনেক কিছুই প্রমাণ করতে হবে।’

পাকিস্তান দলের সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রশিদ লতিফ নতুন অধিনায়কের সমালোচনা করে বলেন, ‘যখন একজন অধিনায়ক প্রেস কনফারেন্সে বসে, সে তার লক্ষ্য নিয়ে কথা বলে। তার কথায় সেগুলো ছিলই না। আমাদের অধিনায়ক ভাষার প্রতিবন্ধকতা নিয়ে কথা বলে শিরোনাম হলেন। বিরাট কোহলির সঙ্গে তুলনা নিয়ে কথা বললেন, যেগুলো কিনা আমরা আগে থেকেই জানি।’

লতিফ আরও বলেন, ‘যে স্ক্রিপ্ট দেয়া হয়েছে, সেটি অনুসরণ না করে বাবরের উচিত ছিল আরও দৃঢ়তার সঙ্গে কথা বলা। তুমি ইতিমধ্যেই দেখিয়ে দিলে যে তোমার মানসিকতা এবং অ্যাপ্রোচ যথেষ্ট পরিণত হয়নি।’

এমএমআর/পিআর