ক্রিকেটকে বিদায় বললেন ইউসুফ পাঠান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫১ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন ভারতের দুইবারের বিশ্বকাপজয়ী অলরাউন্ডার ইউসুফ পাঠান। আজ (শুক্রবার) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি।

২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি এবং ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন ইউসুফ। তিনি সম্পর্কে সাবেক ভারতীয় অলরাউন্ডার ইরফান পাঠানের বড় ভাই। ইরফান খেলোয়াড়ি জীবনকে বিদায় বলেছেন বড় ভাইয়ের আগেই।

ইউসুফ পাঠানের অবসরের ঘোষণা শুনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইরফান পাঠান শ্রদ্ধা জানিয়ে লিখেছেন, ‘তুমি চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটার ছিলে ভাই। বোলাররা তোমাকে ভয় পেতো।’

আসলেই। হার্ডহিটিং ব্যাটিংয়ের জন্য ইউসুফ পাঠানের পরিচিতি ছিল আলাদা। জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট ফরমেটে সুযোগ না পেলেও ৫৭টি ওয়ানডে এবং ২২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন এই অলরাউন্ডার। দুই ফরমেটেই তার স্ট্রাইকরেট একশর ওপরে (ওয়ানডেতে ১১৩.৬০, টি-টোয়েন্টিতে ১৪৬.৫৮)।

ওয়ানডেতে দুটি সেঞ্চুরি এবং তিনটি হাফসেঞ্চুরিতে ৮১০ রান করেছেন ইউসুফ, বল হাতে নিয়েছেন ৩৩ উইকেট। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ২৩৬ রানের পাশাপাশি স্পিন বোলিংয়ে শিকার করেছেন ১৩ উইকেট। ২০১২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে শেষবার ভারতের হয়ে ওয়ানডেতে দেখা গিয়েছিল ইউসুফকে।

আইপিএলেও বেশ কদর ছিল ইউসুফের। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে সাকিব আল হাসানের সতীর্থ হিসেবে ২০১২ আর ২০১৪ সালে শিরোপা জিতেছেন তিনি। আইপিএলে প্রথমবারের শিরোপাজয়ী রাজস্থান রয়্যালস দলেরও সদস্য ছিলেন ইউসুফ।

বিদায়বেলায় ভারতীয় অলরাউন্ডার লিখেছেন, ‘সারাজীবন ভালবাসা এবং সমর্থনের জন্য আমার পরিবার, বন্ধু, সমর্থক, দল, কোচ এবং সমস্ত ভারতবাসীকে ধন্যবাদ। আমার জীবনের এই ইনিংসে এবার দাঁড়ি বসানোর সময় এসে গিয়েছে। সমস্ত ফরম্যাট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করছি। ভারতের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জেতা এবং শচিন টেন্ডুলকারকে কাঁধে তোলা আমার জীবনের স্মরণীয় মুহূর্ত হয়ে থাকবে।’

এমএমআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]