১৫২ রানও করতে পারল না, মুম্বাইর ধাঁধাঁও ভাঙতে পারল না কলকাতা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৭ এএম, ১৪ এপ্রিল ২০২১

নিয়তির বিধান না যায় খণ্ডন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হলে যেন হারতেই হবে কলকাতাকে। এটা যেন স্বতঃসিদ্ধ একটি ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান দৃঢ় ছিলেন, এবার তিনি জিতবেনই।

সে কাজটা আপাতত করে রেখেছিল কেকেআরের বোলাররা। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে ১৫২ রানে বেধে ফেলেছিল তারা। কিন্তু বোলারদের তৈরি করা রাস্তায় হাঁটতে পারেননি কলকাতার ব্যাটসম্যানরা। থেমে যেতে হয়েছে ১৪২ রানের মাথায়। সুতরাং, ১০ রানের পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো শাহরুখ খানের দলকে।

আইপিএলের ইতিহাসে আজকের আগে মুম্বাই-কেকেআর ২৭বার মুখোমুখি হয়েছিল। ২১ বার জিতেছে মুম্বাই। আর শেষ ১০ ম্যাচে ৯বারই জিতেছে রোহিত শর্মার দল। এবার এই ধাঁধাঁ ভাঙার প্রত্যয় থাকলেও শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হলো কলকাতা নাইট রাইডার্স।

জয়ের জন্য ১৫৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার নিতিশ রানা এবং শুভমান গিল ভালোই সূচনা করেছিলেন। দু’জনের ৭২ রানের জুটি দলকে জয়ের অর্ধেক কাজ সম্পন্ন করে দিয়েছিল। কিন্তু ৮.৫ ওভারের মাথায় শুভমান গিলকে রাহুল চাহার ফিরিয়ে দিতেই মড়ক লাগে।

২৪ বলে ৩৩ রান করে ফিরে যান গিল। ৪৭ বলে ৫৭ রান করেন আগের ম্যাচের নায়ক নিতিশ রানা। বাকি ব্যাটসম্যানদের কেউ দুই অংকের ঘরই স্পর্শ করতে পারেননি। রাহুল ত্রিপাথি ৫, ইয়ন মরগ্যান ৭ বলে ৭, সাকিব আল হাসান ৯ বলে ৯, আন্দ্রে রাসেল ১৫ বলে ৯, প্যাট কামিন্স শূন্য, দিনেশ কার্তিক ১১ বলে অপরাজিত ৮ এবং হরভজন সিং ২ বলে করেন অপরাজিত ২ রান।

মুম্বাইর হয়ে রাহুল চাহার ২৭ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। ট্রেন্ট বোল্ট নেন ২ উইকেট। ক্রুনাল পান্ডিয়া নেন ১ উইকেট।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সুর্যকুমার যাদবের ৫৬ রান এবং রোহিত শর্মার ৪৩ রানের ওপর ভর করে ১৫২ রান করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। যদিও তারা অলআউট হয়ে গিয়েছিল। আন্দ্রে রাসেল একাই নেন ৫ উইকেট।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]