কেন এমন খাপছাড়া আর তাড়াহুড়ো ব্যাটিং? জানেন না সুজনও

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

জাগো নিউজের পাঠকরা আগেই জেনেছেন তিনি শেষ টেস্টে দলের সঙ্গে নেই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চরম ব্যর্থতার পর পাকিস্তানের সঙ্গে সিরিজে টিম ডিরেক্টরের দায়িত্ব পেয়ে ঢাকায় হওয়া তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ আর চট্টগ্রামের প্রথম টেস্টে দলের সঙ্গে কাজ করেছেন খালেদ মাহমুদ সুজন।

শেষ টেস্টে ব্যক্তিগত ও পারিবারিক কাজে ব্যস্ত থাকায় শেষ টেস্টে জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে চলে গেছেন। যে কারণে টিম হোটেল, ড্রেসিং রুম আর মাঠে যেতে পারছেন না। শেরে বাংলার গ্র্যান্ডস্ট্যান্ডে ‘প্রেসিডেন্ট বক্সে’ বসে দেখছেন খেলা।

আজ মিরপুর টেস্টের চতুর্থ দিনের শেষ সেশনে মুমিনুল বাহিনীর লাগামহীন ব্যাটিং দেখে হতাশ খালেদ মাহমুদ সুজন। কেন এমন খাপছাড়া ব্যাটিং? ধৈর্য্য হারিয়ে কেন এত তাড়াহুড়ো করলেন সব ব্যাটসম্যান? কোন উত্তর খুঁজে পাচ্ছেন না সুজন।

‘কেন এমন হলো জানি না। অধৈর্য্য ব্যাপারটা ছিল। টেস্ট ব্যাটিং বলতে যা বোঝায় সে রকম তো ব্যাটিং করিনি আমরা।’

কেন এমন খাপছাড়া আর হতচ্ছিরি ব্যাটিং? তা ভাবিয়ে তুলেছে সুজনকেও। তার ভাষায় এই ব্যাপারটা, সেটা চিন্তার বিষয়। সুজন যোগ করেন, ‘উইকেটে স্পিন হচ্ছিল এবং ওরা ভাল স্পিনও করেছে; কিন্তু আমাদের তো কোয়ালিটি স্পিন খেলার সামর্থ্য আমাদের আছে। হয়নি কেন বা এত তাড়াহুড়ো কেন সেটা জানি না।’

সুজন মনে করেন পাকিস্তানীরা যেভাবে ব্যাটিং করেছে, বিশেষ করে আজহার আলি যে লম্বা সময় ব্যাট করেছেন, ‘সেখান থেকে আমাদের শিক্ষা নেয়া উচিত ছিল।’

এআরবি/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]