নাফিস ইকবালের পরিবর্তে বিশ্বকাপে দায়িত্বে রাবিদ ইমাম

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:২৪ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

এশিয়া কাপের আগেও এমন একটা গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। তবে সেটা বাস্তব রূপ পায়নি। এবার জাতীয় দল নিউজিল্যান্ড যাওয়ার ঠিক ২৪ ঘন্টা আগে আবার শোনা গেল, নাফিস ইকবাল আর জাতীয় দলের টিম অপারেশন্স ম্যানেজার নন।

আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুর গড়াতেই ক্রিকেট পাড়ায় খবর, জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার নাফিস ইকবালকে টিম অপারেশন্স ম্যানেজারের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের সঙ্গে পাঠানো হবে না।

নামী ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব প্রয়াত ইকবাল খানের বড় ছেলে, দেশবরেণ্য ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব বিসিবি পরিচালক আকরাম খানের ভাতিজা ও ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের বড় ভাই নাফিস ইকবাল কি সত্যি সত্যিই জাতীয় দলের টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে বাদ যাচ্ছেন?

বিসিবির উচ্চ পর্যায়ের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র এ খবর নিশ্চিত করেছে। তবে কেউ তা আনুষ্ঠানিকভাবে জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন।

জাতীয় দল পরিচালনা ও তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান জালাল ইউনুসকে এ ব্যাপারে ফোন করা হলে তিনি ধরেননি।

তবে জাতীয় দলের টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে ঘটনার সত্যতা। জানা গেছে, রাবিদ ইমাম বিশ্বকাপে জাতীয় দলের টিম অপারেশন্স আর মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করবেন।

হঠাৎ কি কারণে নাফিস ইকবালকে সরিয়ে দেওয়া হলো? তা নিয়েও আছে নানা গুঞ্জন। একটি সূত্র জানিয়েছে, ক্রিকেটারদের অভিযোগের প্রেক্ষিতেই অপসারণ করা হয়েছে জাতীয় দলের সাবেক ওপেনারকে। তবে বোর্ডের কোনো শীর্ষ কর্তা এ নিয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি। বেশিরভাগ কর্তাই বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। নাফিস ইকবাল বোর্ডে ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করেন। তাই তিনি মাঝে ট্যুর বা টিম অপারেশন্স ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেছেন। এখন তাকে সরিয়ে মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমামকে দুটি দায়িত্ব দিয়ে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া পাঠানো হচ্ছে।

এআরবি/এমএমআর/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।