ঢাকায় শাবিপ্রবির সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে আটকের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩১ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২২

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) চলমান আন্দোলনের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) আটক করেছে বলে দাবি করেছেন স্বজনরা।

স্বজনদের দাবি, চলমান আন্দোলনের মধ্যেই শাবিপ্রবির সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে রাজধানীর উত্তরা থেকে নিয়ে গেছে সিআইডি। তারা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কিটেকচার বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী রেজা নূর মুঈন ও সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং (সিইই) বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান (স্বপন)।

এ বিষয়ে সিআইডির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিআইডির অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার (মিডিয়া) আজাদ রহমান জাগো নিউজকে বলেন, শাবিপ্রবির কোনো শিক্ষার্থী আমাদের কাছে আটক নেই।

নিজেকে স্বপনের লোকাল গার্ডিয়ান হিসেবে পরিচয় দিয়ে সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে এক ফেসবুক পোস্টে আটকের বিষয়টি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিইই বিভাগের ২০০৮-০৯ ব্যাচের শিক্ষার্থী শাহ রাজী সিদ্দিকী। হাবিবুর রহমান উত্তরার যে বাসায় থাকেন, ওই ভবনেই থাকেন শাহ রাজী সিদ্দিকী। আর রেজা নূর মুঈন থাকেন রাজউক উত্তরা আবাসিক প্রকল্প এলাকায়।

তিনি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘সিইই-এর Habibur Rahman (স্বপন) আর আর্কিটেকচার-এর Reza Noor Muin কে সিআইডির সাইবার ক্রাইম ইউনিটের একটি টিম উত্তরার বাসা থেকে তুলে নিয়ে গেছে। উত্তরা ১৩ নম্বর সেক্টরে মাইক্রোতেই ছিল ঘণ্টাখানেক, হয়তো আরও কয়েকজনকে আনা হবে তারপর একসঙ্গে সবাইকে নিয়ে যাওয়া হবে সিআইডি হেডকোয়ার্টারে। আমি, আমার মা আর ভাইকে নিয়ে তাৎক্ষণিক সেখানে গিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করে জানার চেষ্টা করেছি, কী কারণে এ হয়রানি। অনশনরত শিক্ষার্থীদের ডোনেট করায় ওদের নেওয়া হচ্ছে বলে জানালো!

দুজনের পরিবারই দুশ্চিনায় নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে, একজনের রোববারই জার্মানির ভিসা হয়েছে কিছুদিনের মধ্যে সেখানকার একটি সফটওয়্যার কোম্পানিতে জয়েন করার কথা! স্বপনের লোকাল গার্ডিয়ান আমরা হওয়ায়, আমার অসুস্থ মা-বাবা এখনো ঘুমোতে পারেননি কারণ আমরা চলে আসার পর থেকেই তার নম্বর বন্ধ।

সাইবার পুলিশ সেন্টার ইনভেস্টিগেট করছে... ফোন নম্বর আমকে ইনবক্স করলেই পেয়ে যাবেন। আমার ফ্রেন্ডলিস্টে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সাস্টিয়ান ভাই/আপু যারা আছেন সম্ভব হলে ওদের সহযোগিতা করুন। ধন্যবাদ

শাহ্ রাজী সিদ্দিকী
সিইই ২০০৮-০৯
সাস্ট।’

যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সোমবার সন্ধ্যার পর ওদের উত্তরার বাসা থেকে ধরে নিয়ে যায় সিআইডির কর্মকর্তা পরিচয় দেওয়া ব্যক্তিরা। ঘণ্টাখানেক তাদের মাইক্রোবাসে রেখে দেওয়া হয়, তখন আমরা কথা বলেছি তাদের সঙ্গে।

টিটি/এমএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]