টাকায় বিনামূল্যের বই, শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ

উপজেলা প্রতিনিধি কালীগঞ্জ (গাজীপুর)
প্রকাশিত: ১২:২৯ পিএম, ০২ জানুয়ারি ২০১৮

গাজীপুর সদর উপজেলার এক মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিনামূল্যের (সরকারি) পাঠ্যবই টাকার বিনিময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরবরাহসহ নানা অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

এ জন্য ওই শিক্ষা কর্মকর্তা আনন্দ কুমার ভৌমিককে গাজীপুর থেকে প্রত্যাহারসহ বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। মঙ্গলবার সকালে ওই সুপারিশসহ প্রতিবেদনটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর জাগো নিউজ বলেন, ১ জানুয়ারির বই উৎসব পালনের আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে উপজেলা শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে বিনামূল্যের সরকারি পাঠ্যবই বিতরণ করা হচ্ছিল।

ওইসব বই সরবরাহের আগে গাজীপুর জেলা কিন্ডার গার্টেন অ্যাসোসিয়েশনের নেতা ও কর্মীদের মাধ্যমে গাজীপুর সিটির ৫৭টি ওয়ার্ডে ৫৭ জন প্রতিনিধি নিযুক্ত করে গাজীপুর সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কয়েক দফায় টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠে।

গত বৃহস্পতিবার জয়দেবপুর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের গুদাম থেকে বই সরবরাহের আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও প্রতিনিধিদের কাছে আবারও টাকা দাবি করলে শিক্ষকরা প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে। পরে জাগো নিউজসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশ হয়।

এর প্রেক্ষিতে ওইদিনই গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) খন্দকার ইয়াসির আরেফিন, গাজীপুর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রেবেকা সুলাতানা এবং গাজীপুর জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার (শিক্ষা) ফারজানা নাসরিনের মাধ্যমে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সোমবার দুপুরে তারা তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন।

বই বিতরণে টাকা গ্রহণ ছাড়াও ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ক্রমাগত নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া গেছে। এছাড়া একদিনে প্রশাসনকে না জানিয়েই গুদাম থেকে ৭৪২টি প্রতিষ্ঠানে বই সরবরাহ করতে গিয়ে ব্যবস্থাপনার ত্রুটি সৃষ্টি করেছে। যাতে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে।

তদন্ত প্রতিবেদনে শিক্ষা কর্মকর্তা আনন্দ কুমার ভৌমিককে গাজীপুর থেকে প্রত্যাহারসহ বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি।

আব্দুর রহমান আরমান/এএম/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :