সংবিধানের বাইরে কোনো দাবি মানা হবে না : নাসিম

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৯:০৯ পিএম, ০৮ নভেম্বর ২০১৮

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি তাদের নেত্রীকে জেল থেকে বের না করে নেতা ভাড়া করে রাজনীতির মাঠে নেমেছে। ভাড়াটিয়া নেতা দিয়ে রাজনীতি ও ভোট হয় না।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বগুড়ার নন্দীগ্রামে মনসুর হোসেন ডিগ্রি কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অন্য দলগুলোর সঙ্গে সরকারের চলমান সংলাপের প্রসঙ্গ টেনে নাসিম বলেন, সংলাপ হয়েছে। কিন্তু সংবিধানের বাইরে কোনো দাবি মানা হবে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। মানুষ শান্তিতে থাকে। বিএনপি-জামায়াত জোটের শাসনামলে দেশে হাওয়া ভবন প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। জঙ্গি উত্থান হয়েছে, দেশের সম্পদ লুটপাট হয়েছে। জনগণ আর হাওয়া ভবন দেখতে চায় না। আগুনে পুড়িয়ে যারা মানুষ হত্যা করে তাদের কেউ ভোট দেবে না।

তিনি বলেন, বিশ্বকাপে মেসি গোল মিস করতে পারে, নেইমার গোল মিস করতে পারে, ইনশাল্লাহ শেখ হাসিনা গোল মিস করবেন না।

নাসিম বলেন, এক-এগারোর কুশীলবরা জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলনকারীদের সঙ্গে যোগ দিয়ে আবারও সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তারা নতুন করে হাওয়া ভবন প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখছে এবং নির্বাচন বানচাল করার ষড়যন্ত্র করছে। এ দেশের জনগণ তাদের চক্রান্তের দাঁতভাঙা জবাব দেবে।

তিনি আরও বলেন, খেলা হবে, খেলা মাঠে হবে। তাই বিএনপি নেতাদের বলবো নির্বাচনে আছেন। একবার নির্বাচনে না এসে ভুল করেছেন। আমরা খেলায় ভয় পাই না। নির্বাচনে আসুন জনগণ যে রায় দেবে আমরা সে রায় মেনে নেব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। নির্বাচনে ফাইনাল খেলা হবে।

দলীয় নেতাদের সতর্ক করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগকে নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু হয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধু সফল হয়েছিলেন বলেই তাঁকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে। তাই আগামী দিনে নৌকার জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। নৌকার মালিক শেখ হাসিনা, তিনি যাকে নৌকা দেবেন তার পক্ষে সবাইকে কাজ করতে হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রানার সঞ্চালনালয় জনসভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মমতাজ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু, দফতর সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন নবাব, উপ-দফতর সম্পাদক মাশরাফী হিরো, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা আনিছুর রহমান, মুকুল হোসেন, মোরশেদুল বারী প্রমুখ।

লিমন বাসার/আরএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :