অবশেষে স্বপ্নপূরণ, পঞ্চগড়-ঢাকা ট্রেন শুরু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও
প্রকাশিত: ১২:১৪ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৮

দেশের দীর্ঘতম রেলপথ পঞ্চগড় থেকে ঢাকা রুটে শুরু হলো সরাসরি আন্তনগর রেল যোগাযোগ। শনিবার সকালে পঞ্চগড় রেল স্টেশনে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আবুল কালাম আজাদ এর উদ্বোধন করেন।

এ সময় বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক কাজী রফিকুল আলম, পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম সুজন, জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহম্মদ গোলাম আযম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনোয়ার সাদাত সম্রাটসহ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনের পর সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে পঞ্চগড় স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায় লাল সবুজের দ্রুতযান আন্তঃনগর ট্রেনটি। রেল বিভাগের পক্ষ থেকে দ্রুতযানের নতুন যাত্রীদের রজনীগন্ধার স্টিক দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। রাত ৯টায় একতা এক্সপ্রেস নামে আরেকটি আন্তনগর ট্রেন পঞ্চগড় ছেড়ে যাবে।

পঞ্চগড়ের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল পঞ্চগড়-ঢাকা সরাসরি রেল যোগাযোগ। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের অংশ হিসেবে ৯৮২ কোটি টাকা ব্যয়ে দিনাজপুর-পার্বতীপুর-পঞ্চগড় ১৫০ কিলোমিটার রেল লাইন ডুয়েল গেজে রূপান্তর করে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

পঞ্চগড় রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে রেলপথে পঞ্চগড়ের দূরত্ব ৬৩৯ কিলোমিটার। দেশের দীর্ঘতম এ রেলপথে পঞ্চগড় থেকে দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁও হয়ে দ্রুতযান ও একতা এক্সপ্রেস নামে দুটি ট্রেন নিয়োমিত যাতায়াত করবে। আপাতত কোনো সাপ্তাহিক বিরতি থাকবে না।

train

প্রতিদিন সকাল ৭টা ২০ মিনিটে দ্রুতযান এক্সপ্রেস এবং রাত ৯টায় একতা এক্সপ্রেস ঢাকার উদ্দেশে পঞ্চগড় স্টেশন ছেড়ে যাবে। এই দুই ট্রেনে ১৩টি করে বগি রয়েছে। একতা এক্সপ্রেসে ৮৯৪ এবং দ্রুতযানে মোট ৯৪৪টি করে আসন রয়েছে। এসব ট্রেনে এক হাজার ২০০ পর্যন্ত যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন।

রেলপথ মন্ত্রণালয় অতিরিক্ত সচিব আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঢাকা-পঞ্চগড় সরাসরি রেল যোগাযোগ উদ্বোধন করা হলো। আগামীতে এই রুট বাংলাবান্ধা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হবে। এর সম্ভাব্যতা যাচাই করতে বিশেষজ্ঞরা কাজ শুরু করেছেন। ইতিবাচক এই প্রকল্প বাস্তবায়ন সময়ের ব্যাপার। এক বছরের মধ্যে এর প্রতিবেদন পাওয়া যাবে। ঢাকা-বাংলাবান্ধা রুটের মাধ্যমে আগামীতে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর হয়ে আমরা ভারত, নেপাল এবং ভুটান যাতায়াত করবো।

এদিকে এ ট্রেন সার্ভিস চালু হওয়ায় ঠাকুরগাঁওবাসীর দীর্ঘ দিনের স্বপ্নের দাবি পূরোণ হলো। শনিবার সকালে ঠাকুরগাঁও রেল স্টেশনে পঞ্চগড়-ঢাকা আন্তনগর ট্রেনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে সাধারণ মানুষের স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে রেল স্টেশন এলাকা।

বক্তব্য শেষে যাত্রীদের মাঝে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান অতিথিরা। পরে ট্রেনটি ঠাকুরগাঁও থেকে ঢাকার উদ্দেশে রাওনা দেয়।

ঢাকার উদ্দেশে পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা একতা এক্সপ্রেস ঠাকুরগাঁও পৌঁছাবে রাত ৯টা ৪০মিনিটে এবং দ্রুতযান এক্সপ্রেস সকাল ৮টায়।

সফিকুল/রিপন/এফএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :