নিহতদের মধ্যে নোয়াখালীর একই ইউনিয়নের ৭ জন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০১:২৯ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

পুরান ঢাকার চকবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে হতাহতদের অনেকের বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলার নাটেশ্বর ইউয়িনের বিভিন্ন গ্রামে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে হতাহতদের বাড়িতে স্বজনদের আহাজারি করতে দেখা গেছে। কেউ কেউ স্বজনদের কোনো সন্ধানই পাচ্ছেন না। তবে দুপুর ১টা পর্যন্ত নাটেশ্বর ইউনিয়নের সাতজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

এরা হলেন- নাটেশ্বর ইউয়িনের ঘোষকামতা গ্রামের খাসের বাড়ির সাহেব উল্যার ছেলে মাসুদ রানা ও রাজু, একই ইউনিয়নের বটতলির আব্দুল মুমিনের ছেলে সাহাদাত হোসেন হিরা, মির্জা নগরের আব্দুর রহিম বিএসসির ছেলে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এবং একই গ্রামের আব্দুল গউসের ছেলে নাছির উদ্দিন। নিহতদের পরিবার বিষয়টি জানিয়েছেন। এছাড়া আরও দুইজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

এলাকাবাসী জানায়, শুধু নাটেশ্বর ইউনিয়নের কয়েকশত লোক ঢাকার চকবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে ব্যবসা করে। অগ্নিকাণ্ডে ঘটনায় হতাহতদের মধ্যে আরও অনেকে থাকতে পারে।

নাটেশ্বর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কবির হোসেন খোকন বলেন, এখন পর্যন্ত আমার ইউনিয়নের সাতজনের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুরান ঢাকার চকবাজারের নন্দকুমার দত্ত সড়কের চুরিহাট্টা মসজিদ গলির রাজ্জাক ভবনে আগুন লাগে। রাতে পৌনে ১টার দিকে পাশের কয়েকটি ভবনে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) জাবেদ পাটোয়ারী সকাল সাড়ে ৮টার দিকে প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৭০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আরও মরদেহ থাকতে পারে। উদ্ধার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা জানা যাবে না বলে ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে।

মিজানুর রহমান/আরএআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :