অরক্ষিত লেভেল ক্রসিংয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি শ্রীপুর (গাজীপুর)
প্রকাশিত: ০৫:২৯ পিএম, ২৫ মে ২০১৯

গাজীপুরের শ্রীপুর রেলস্টেশনের পাশঘেঁষে চলে গেছে শ্রীপুর-কাপাসিয়া সড়ক। সড়কটির লেভেল ক্রসিংয়ের এক পাশের গেট দীর্ঘদিন নষ্ট থাকায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে সাধারণ যাত্রীসহ স্থানীয়রা। এতে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।

রেলওয়ে বিভাগ ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ রেল সড়কের অন্যতম ব্যস্ততম শ্রীপুর রেলস্টেশন। এ স্টেশনটি ঘিরে প্রতিদিন ৭টি ট্রেন দিনে ১৪ বার যাত্রাবিরতি করে এবং মোট ১২টি ট্রেন ২৪ বার চলাচল করে। স্টেশনটি শ্রীপুর বাজারের পার্শ্ববর্তী হওয়ায় বাজার ও স্টেশন ঘিরে সবসময়ই লোক সমাগম থাকে।

শ্রীপুর থেকে যাত্রীরা ওই সড়ক ব্যবহার করে পার্শ্ববর্তী কাপাসিয়া, গাজীপুর জেলা সদর, নরসিংদী হয়ে সিলেট ও চট্টগ্রাম মহাসড়কের আশপাশের কয়েকটি জেলায় যাতায়াত করে। বিরতিহীন ট্রেন ও স্টেশনে যাত্রাবিরতি দেয়া ট্রেনগুলো স্টেশনে দাঁড়ানোর পূর্বেই লেভেল ক্রসিংয়ের পশ্চিম পাশের গেট নামানো হয়। এ সময় নষ্ট থাকায় অরক্ষিত থাকে পূর্ব পাশের গেট। দীর্ঘদিন ধরে লেভেল ক্রসিংয়ের পূর্ব পাশের গেট (লোহার প্রতিবন্ধক) নষ্ট থাকায় পথচারী, সাধারণ যাত্রী, স্থানীয় জনসাধারণ ও যানবাহন নিজ দায়িত্বে পারাপার হচ্ছে। এতে তৈরি হচ্ছে দুর্ঘটনার ঝুঁকি।

শ্রীপুর বাজারের ব্যবসায়ী শামসুল আলম স্বপন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ সড়কের ওপর এক পাশের লেভেল ক্রসিংটি নামানো হচ্ছে না। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, লেভেল ক্রসিং নষ্ট। নষ্ট থাকায় ঝুঁকি নিয়ে নিজ দায়িত্বে রেললাইন পারাপার হচ্ছে স্থানীয়রা। এতে যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

SRiPUR2

তিনি আরও বলেন, রেল কর্তৃপক্ষের কাজ দেখে মনে হচ্ছে বড় দুর্ঘটনা না ঘটলে লেভেল ক্রসিংটি মেরামত করবে না। শ্রীপুরের ব্যবসায়ী সমাজের পক্ষ থেকে তিনি দ্রুত লেভেল ক্রসিংটি মেরামতের দাবি জানান।

শ্রীপুর রেলস্টেশনের গেট কিপার মাসুদ রানা জানান, দীর্ঘদিন ধরে লেভেল ক্রসিংটির একপাশের পিনিয়াম নষ্ট হওয়ায় সেটি আর কাজ করছে না। পশ্চিম পাশের লেভেল ক্রসিং নামিয়ে দিয়ে পূর্ব পাশে দাঁড়িয়ে থেকে হাতের ইশারায় ছোট-বড় যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করতে হয়। কিন্তু যানবাহনের চালকরা হাতে ইশারা না মেনে চলাচল করে। এতে বাধা দিলে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়।

শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার হারুন অর রশিদ জানান, লেভেল ক্রসিংটি দুই থেকে আড়াই মাস ধরে কাজ করছে না। এতে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। বিষয়টি কয়েকবার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

শিহাব খান/আরএআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :