মাস্টার্সের প্রথম পরীক্ষা দিয়েই না ফেরার দেশে শারমিন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ১০:১৭ পিএম, ২৬ জুন ২০১৯
প্রতীকী ছবি

মাস্টার্সের প্রথম পরীক্ষা দিয়ে আর বাড়ি ফেরা হলো না শারমিন সুলতানা তমার (২৬)। ট্রাক চাপায় পিষ্ট হয়ে বাড়ি ফিরল তার লাশ।

বুধবার বিকেলে সাড়ে ৫টার দিকে যশোর-চৌগাছা সড়কের সলুয়া বাজারে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

শারমিন সুলতানা তমা যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন (এমএম) কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্রী। তিনি চৌগাছা পৌরসভার চাঁদপুর এলাকার আশরাফুল ইসলাম মান্নুর মেয়ে ও চৌগাছার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের মাশিলা গ্রামের মাসুদুর রহমান মাসুদের স্ত্রী। শারমিন দুই কন্যা সন্তানের জননী।

নিহতের চাচা তৌহিদুর রহমান দিপ্ত বলেন, বুধবার দুপুরে শারমিনের মাস্টার্সের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হয়। প্রথম দিনের পরীক্ষা শেষে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে যশোর থেকে তার স্বামীর সঙ্গে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে যশোর-চৌগাছা সড়কের সলুয়া বাজারের কাছে পৌঁছালে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়েন শারমিন। এসময় চৌগাছা থেকে আসা যশোরগামী একটি ট্রাক (রংপুর-চ-১১-০২৯৬) তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেলে স্থানীয়রা ক্ষুব্ধ হয়ে ট্রাকটি ভাঙচুর করে।

চৌগাছা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহিনুর রহমান জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ট্রাকটিকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তবে ট্রাকের চালক বা হেলপার কাউকে আটক করা যায়নি।

মিলন রহমান/এমবিআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :