যবিপ্রবির সাবেক উপাচার্য সাত্তারের ছেলের রহস্যজনক মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৩:৩৬ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২০
মৃত ওয়াসেক সাত্তার আবির

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) সাবেক উপাচার্য এবং ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আব্দুস সাত্তারের বড় ছেলে ওয়াসেক সাত্তার আবিরের (২৫) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে ঢাকার হাতিরঝিলে পানিতে ডুবে তার মৃত্যু হয়। তার মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ওয়াসেক সাত্তার আবিরের ছোট ভাই ওয়াসিফ সাত্তার নিবিড় জানান, ২৩ নভেম্বর রাতে যশোর থেকে মায়ের সঙ্গে ঢাকায় যান ওয়াসেক সাত্তার আবির। মঙ্গলবার বিকেলে একটি ফোন পেয়ে তিনি হাতিরঝিলে যান। রাতে হাতিরঝিল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। কিভাবে তিনি হাতিরঝিলে পড়ে গেলেন তা পরিষ্কার নয়। বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ।

হাতিরঝিল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আসাদ বিন আব্দুল কাদির বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাতিরঝিলের একটি ব্রিজ থেকে আবির পানিতে পড়ে যান। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মগবাজারের ইনসাফ বারাকাহ কিডনি অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। রাতে তার মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আসাদ বিন আব্দুল কাদির আরও বলেন, যে স্থান থেকে ঝিলের পানিতে তিনি পড়েছেন সেই স্থানটি রাতে অন্ধকার ছিল। ফলে কিভাবে তিনি পানিতে পড়েছেন তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

ওয়াসেক সাত্তার আবিরের ছোট ভাই ওয়াসিফ সাত্তার নিবিড় জানান, ওয়াসেক সাত্তার আবির মালয়েশিয়ার পুত্রামালায় ইউনিভার্সিটিতে (ইউপিএম) সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে লেখাপড়া করতেন। করোনার কারণে তিনি দেশে অবস্থান করছিলেন। হাসপাতাল থেকে মরদেহ পাওয়ার পর যশোরে নিয়ে এসে দাফন করা হবে।

এদিকে, ওয়াসেক সাত্তার আবিরের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন।

পাশাপাশি ওয়াসেক সাত্তার আবিরের অকাল প্রয়াণে যবিপ্রবির শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা সমিতি ও কর্মচারী সমিতি গভীর শোক প্রকাশ করেছে। একই সঙ্গে যবিপ্রবি ছাত্রলীগ, সাংবাদিক সমিতিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও তার অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছে।

মিলন রহমান/এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]