বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে উপচেপড়া ভিড়

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি শ্রীপুর (গাজীপুর)
প্রকাশিত: ০৯:০৯ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

টানা তিনদিনের ছুটিতে গাজীপুরের শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে মানুষের উপচেপড়া ভিড়। মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও সাপ্তাহিক দুইদিনের ছুটির কারণে ভিড় সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন পার্ক কতৃপক্ষ।

এদিকে পার্কের মূল ফটকে ইজারাদারদের দ্বারা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন পার্কে আসা দর্শনাথীরা। হয়রানি বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন পার্ক কতৃপক্ষ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রায় ৪০ হাজার দর্শনার্থী পার্কে প্রবেশ করেন। পার্ক গড়ে তোলার পর একদিনে এমন দর্শনার্থী প্রবেশের ঘটনা এটাই প্রথম। সীমিত জনবল নিয়ে সকাল থেকে দর্শনার্থীদের সামাল দিতে হিমসিম খেতে হয় তাদের। যদিও দর্শনার্থীরা পার্কের মূল গেইটে প্রবেশের সময় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্তদের হাতে নাজেহালের অভিযোগ করেছেন।

jagonews24

মানিকগঞ্জের শিবালয় থেকে ব্যাংক কর্মকর্তা আব্দুর রহিম পরিবারের চার সদস্যকে নিয়ে আসেন সাফারী পার্কে। তিনি অভিযোগ করেন, মূল প্রবেশ ফটকে তার সাড়ে চার বছর বয়সী শিশুরও বড়দের সমান টিকেট কেটে প্রবেশ করতে হয়েছে। তিনি প্রতিবাদ করায় তাকে লাঞ্চিত করে পার্ক থেকে বের দিচ্ছিল মূল ফটকে দায়িত্বপ্রাপ্তরা। পরে অন্যান্য দর্শনার্থীদের সহযোগিতায় তিনি মারধরের হাত থেকে রক্ষা পান।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, প্রবেশ ফটকের লোকজনের নূন্যতম সৌজন্যতা নেই, তাদের আচরণ সন্ত্রাসীর মতো। এভাবে দায়িত্বপালন করলে জাতির জনকের নামে প্রতিষ্ঠিত এই পার্ক সম্পর্কে সাধারণ মানুষের নেতিবাচক ধারণা জন্ম নেবে।

আরেক দর্শনার্থী মফিজুল ইসলাম বলেন, স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের প্রবেশেও গেটে বয়স্কদের টাকা নিচ্ছেন, এনিয়ে প্রতিবাদ করলে নানা ধরনের কথা শুনতে হয়েছে।’

এ বিষয়ে পার্কের মূল ফটকের ইজারাদার মেসার্স নাহিদা এ্যাডভারটাইজিং অ্যান্ড প্রিন্টিংয়ের পরিচালক আজাহারুল ইসলাম বলেন, ‘পার্কের মূল প্রবেশ ফটকে হয়রানীর অভিযোগ সত্য নয়। তবে আমাদের দূর থেকে দায়িত্বপালন করতে নানা ধরনের সমস্যা হয় বিধায় অনেক সময় স্থানীয়দের সহায়তা নেই।’

jagonews24

সাফারী পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তবিবুর রহমান বলেন, ‘স্বল্প জনবল দিয়ে বিপুল মানুষের উপস্থিতিতে কিছুটা বেগ পেতে হয়েছে। পার্কের ভেতরে অনেকে দর্শনার্থী নয়নাভিরাম সৌন্দর্যের জন্য রোপন করা গাছের ফুল নষ্ট করে ফেলেছে। অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক থেকে পার্কে প্রবেশের সড়কগুলোতে যানজটে পড়েন সাধারণ পার্কে আসা দর্শনাথীরা। এদিন পার্কের বিভিন্ন ইভেন্টগুলোতেও দর্শনার্থীদের দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়। সবমিলিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে দর্শনার্থীরা পার্কে বিনোদন উপভোগ করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘অভিযোগ গুলো কেউ মৌখিক বা লিখিত আকারে কেউ জানায়নি। যদি এরকম কেউ করে থাকে সরাসরি পার্ক কর্তৃপক্ষকে জানানোর অনুরোধ করেন তিনি। পার্কের ভাবমূর্তি রক্ষার স্বার্থে বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষদের অবহিত করা হয়েছে।’

শিহাব খান/আরএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]