বিকাশ থেকে অর্থ আত্মসাৎ, দেড় বছর পর আটক প্রতারক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৯:৪২ এএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

প্রায় দেড় বছর আগে বিকাশে প্রতারণার শিকার হন রাজশাহী কোর্টের আইনজীবী সালাউদ্দিন বিশ্বাস। এ বিষয়ে তিনি রাজপাড়া থানায় অভিযোগ দেন ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর। ওই প্রতারণার মামলায় বিকাশ থেকে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার ব্যক্তির নাম মো. সেলিম মিয়া (২৬)। তিনি রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি থানার পশ্চিম মৌকুড়ি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি মো. ইদ্রিস মিয়া ছেলে।

সম্প্রতি সেলিমকে নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বিকাশ প্রতারণা ও গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজহারুল ইসলাম।

তিনি জানান, মামলাটি প্রায় দেড় বছর আগের। সালাউদ্দিন বিশ্বাসের কাছে তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট তথ্য ভুলের কারণে বন্ধ হয়ে যাবে বলে কৌশলে অন্যান্য তথ্যসহ পিন নম্বর জেনে নিয়ে নেন প্রতারক সেলিম। এভাবে তিনি প্রতারণামূলকভাবে ৩২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। পরবর্তীতে সালাউদ্দিন বুঝতে পারেন, তার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। পরে তিনি প্রতারণার মামলাটি করেন।

তিনি আরও জানান, মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রাজপাড়া থানা পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রতারকের অবস্থান ও সন্ধান চিহ্নিত করে। পরবর্তীতে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি থানা পুলিশের সহায়তা নিয়ে গত মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে তার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, আসামি সেলিম একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্য বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে। তার সঙ্গে অন্যান্য মামলার যোগসূত্র, অনুসন্ধান ও যাচাই চলছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রাজশাহীর বিভিন্ন ডিজিটাল প্রতারণার সঙ্গে রাজবাড়ী জেলার প্রতারকচক্রের যোগসূত্র রয়েছে।

এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]