মণিরামপুরে মন্দির থেকে প্রতিমার স্বর্ণালঙ্কার চুরির অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৩:৩০ এএম, ১২ এপ্রিল ২০২১

যশোরের মণিরামপুরের একটি মন্দিরের প্রতিমা থেকে ১০ জোড়া শাঁখাসহ স্বর্ণালঙ্কার চুরির অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১০ এপ্রিল) রাতে উপজেলার দূর্বাডাঙ্গার কাজিয়াড়া মহাশ্মশানের তারাপীঠ কালিমন্দরে এ চুরির ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে রোববার (১২ এপ্রিল) মণিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম এবং নেহালপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আতিকুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয়দের ধারণা- মাদকাসক্ত বখাটে যুবকরা রাতের কোনো এক সময়ে প্রতিমার স্বর্ণালঙ্কার চুরি করতে পারে। এ ঘটনায় থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্দির কমিটির সভাপতি রঘু রাহা জানান, মন্দিরে অমাবস্যা ও পূর্ণিমায় কালী পূজা হয়। পূজায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পাশাপাশি মুসলিম সম্প্রদায়ের অনেকেও টাকা-পয়সা দিয়ে সব ধরনের সহযোগিতা করেন। এখানে হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্পর্কও অটুট।

তিনি জানান, ঘটনার রাতে দুর্বৃত্তরা মন্দিরে হানা দিয়ে প্রতিমার চারটি হাত ভেঙ্গে ফেলেছে। ওইসব হাতে থাকা ১০ জোড়া শাঁখা, স্বর্ণের কয়েকটি টিপ ও টিকলি চুরি করে নিয়ে গেছে।

পুরহিত সত্য আচার্য্য জানান, প্রতিদিনের মতো রোববারও সকাল ১০টার দিকে দুইজন সহযোগীকে সঙ্গে নিয়ে তিনি মন্দিরে পূজা করতে যান। এ সময় মন্দিরে বাঁশের তৈরি দরজা খোলা দেখতে পান। ভেতরে ঢুকে দেখতে পান প্রতিমার চারটি হাতের কব্জি ভাঙ্গা এবং কপালে থাকা স্বর্ণের টিপ ও টিকলি নেই। ধারণা করছি- নেশাখোর দুর্বৃত্তরা শাঁখা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে গেছে।

পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উত্তম রাহা জানান, ‘এই মন্দিরে আগেও কয়েকবার চুরি হয়েছে।’ মণিরামপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, ‘ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেফতার করা হবে।’

মিলন রহমান/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]