পরিবারের সদস্যদের অচেতন করে বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০২:০২ পিএম, ২২ মে ২০২২
ফাইল ছবি

রংপুরের বদরগঞ্জে পরিবারের সদস্যদের অচেতন করার পর বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মিলন হোসেন ও মোস্তাকিন নামে অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী আর অভিযুক্ত তিনজন একে অপরের বন্ধু। শুক্রবার (২০ মে) দিনের বেলায় তারা একসঙ্গে ঘোরাঘুরি করেন। রাতে ওই গৃহবধূর শাশুড়ি তাদের রান্না করে খাওয়ান। কিন্তু কৌশলে ওই গৃহবধূ, তার শ্বশুর-শাশুড়ি আর স্বামীর খাবারে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে দেন ওই তিন ব্যক্তি।

ভাত খাওয়ার পরপরই পরিবারের সদস্যরা ঘুমিয়ে পড়েন। রাত ১টার দিকে ওই গৃহবধূর কক্ষে প্রবেশ করে তার স্বামী তিন বন্ধু। এ সময় তারা তাদের বন্ধুর হাত-পা রশি দিয়ে বেঁধে মুখে টেপ লাগিয়ে অচেতন স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন। এক পর্যায়ে জ্ঞান ফিরে এলে ওই গৃহবধূ চিৎকার শুরু করেন। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যান।

এদিকে শনিবার (২১ মে) সকালে ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূসহ তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়িকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর স্বামী মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ‘বিষয়টি আমরা জানার পরই ঘটনাস্থলে যাই। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতাও মিলেছে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মিলন ও মোস্তাকিন নামের দুই যুবককে শনিবার আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্য একজনকেও ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

জিতু কবীর/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]