তানিনের ‘ছোট জায়গায় সহজ সমাধান’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৫২ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

ছোট পরিসরে একই পণ্যের বহুমাত্রিক ব্যবহার- তানিন বেস্ট ওয়্যার ফার্নিচার এমনই একটি পণ্য এবারের বাণিজ্য মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জন্য হাজির করেছে। পণ্যটি ইতোমধ্যে সবার নজর কেড়েছে।

প্রথম দেখাতেই মনে হবে এটি একটি সোফা। কিন্তু প্রয়োজন পড়লে সেই সোফা হয়ে যাবে আরামদায়ক বিছানা। তানিন বেস্ট ওয়্যার ফার্নিচার পণ্যটি ‘ছোট জায়গায় সহজ সমাধন’ হিসেবে দর্শনার্থীদের সামনে উপস্থাপন করেছে।

বাণিজ্য মেলা থেকে ইচ্ছুক ক্রেতারা পণ্যটি কিনতে পারবেন ১০ হাজার ৫২০ টাকা দিয়ে। পাশাপাশি তানিন বেস্ট ওয়্যার ফার্নিচার প্রয়োজন পড়লে ফোল্ডিং করে রাখা যাবে এমন একটি খাট নিয়ে এসেছে। যার মূল্য ধরা হয়েছে পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা।

jagonews24

এ বিষয়ে প্যাভিলিয়নের দায়িত্বে থাকা তানিন বেস্ট ওয়্যারের ডিজিএম এস এ বি বকুল হক বলেন, ঢাকা শহরে অনেক ফ্ল্যাট রয়েছে, যার সাইজ ছোট। জায়গা কম থাকায় প্রয়োজনীয় সামগ্রী রাখা যায় না। বিষয়টি মাথায় রেখে আমাদের এমন উদ্ভাবন। পণ্যটি দিনের বেলায় সোফা হিসেবে এবং রাতে প্রয়োজন হলে বিছানা হিসেবেও ব্যবহার করা যবে।

তানিন বেস্ট ওয়্যার ফার্নিচার এ পণ্যের পাশাপাশি মেলায় বিভিন্ন ধরনের প্লাস্টিকের চেয়ার, টেবিল, হসপিটাল বেড, মেডিসিন কেবিনেট, ফুড টলি, স্কুল বেঞ্চসহ বিভিন্ন সামগ্রী বিক্রি করছে।

বকুল হক আরো বলেন, মেলার ক্রেতারা তানিন’র চেয়ার সর্বনিম্ন ৩৮০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৫১০ টাকা দিয়ে কিনতে পারবেন। বিভিন্ন ধরনের টেবিল আছে দুই হাজার ১৬০ থেকে চার হাজার ৭৭০ টাকার মধ্যে। ওয়েটিং চেয়ার আছে পাঁচ হাজার ৫০০ থেকে ১২ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে। বিভিন্ন ধরনের অফিস চেয়ার ক্রেতারা কিনতে পারবেন দুই হাজার ৭১০ থেকে ১৭ হাজার টাকার মধ্যে। অফিস ডেস্ক আছে পাঁচ হাজার ৫৫৫ টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে। আকর্ষণীয় একটি টুল পাওয়া যাচ্ছে ২১৫ টাকায়।

jagonews24

এছাড়া হাসপাতালে ব্যবহৃত রোগির বেড পাওয়া যাচ্ছে এক লাখ ২৪ হাজার ৭০০ টাকায়। মেডিসিন কেবিনেট ৩০ হাজার, ফুড টলি ১০ হাজার, হসপিটাল টলি ১২ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। স্কুল বেঞ্চ আছে চার হাজার ৫৫৫ থেকে ছয় হাজার ৯৯০ টাকার মধ্যে। ডাবল ডেকার বেড পাওয় যাচ্ছে ১৮ হাজার ৫০০ টাকায়।

বকুল হক বলেন, মেলা থেকে কেউ আমাদের তিন হাজার টাকার পণ্য কিনলে পাচ্ছেন স্ক্র্যাচ কার্ড। কার্ড ঘষলেই পাওয়া যাচ্ছে নিশ্চিত উপহার। এর মধ্যে আছে মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ও ভারত যাওয়ার এয়ার টিকিট।

তিনি বলেন, মেলার প্রথম দিন থেকে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের বেশ সাড়া পাচ্ছি। এবারের মেলায় আমাদের সবচেয়ে আকর্ষণীয় পণ্য হলো সোফা কাম বেড পণ্যটি। দর্শনার্থীদের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে এটি।

এমএএস/এমএআর/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]