নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন পূর্ণিমার বোন

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৫০ পিএম, ২৯ জুন ২০২১

নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের তৃতীয় প্রজন্মের অভিবাসন চলমান। এখানে কোনো বাংলাদেশি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হতে পারছিলেন না। গত দুই দশকের বেশি সময় ধরে চেষ্টা করছিলেন বাংলাদেশি অভিবাসীরা। কিন্তু কোথাও নিজেদের কোনো ঐক্যবদ্ধ প্রার্থী দাঁড় করাতে পারেননি।

সেই আক্ষেপ শেষ হলো। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে প্রথমবারের মতো একজন বাংলাদেশি-আমেরিকান জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলেন। তার নাম শাহানা হানিফ।

শাহানা বাংলাদেশি অধ্যুষিত ডিস্ট্রিক্ট থার্টি নাইন (ব্রুকলিনে) থেকে কাউন্সিল মেম্বার পদে নির্বাচন করেছেন। সেখানে শাহানার প্রাপ্ত ভোট ১০ হাজার ৪৪৯, যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর প্রাপ্ত ভোট ৭ হাজার ২৩৫।

শাহানা হানিফের বাড়ি চট্টগ্রামের নাজিরহাটের পূর্ব ফরহাদাবাদে। তিনি চট্টগ্রাম সমিতির সাবেক সভাপতি ও ট্রাস্টি বোর্ড চেয়ারম্যান এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মোহাম্মদ হানিফের কন্যা। ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা দিলারা হানিফ পূর্ণিমার ফুফাতো বোন শাহানা। বোনের সাফল্যের এই খবরে ভিষণ আনন্দিত পূর্ণিমা। তিনি বোনেক শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেসবুকেও লিখেছেন। জানিয়েছেন, শাহানার জয়ে তিনি গর্বিত।

এই অভিনেত্রী বলেন, ‘শাহানা হানিফ বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছে। শুধু আমাদের পরিবার নয়, পুরো দেশের জন্যই এটি গর্বের বিষয়। তার এই জয়ে সেখানকার বাংলাদেশিদেরও অনেক অর্জন যুক্ত হবে বলে প্রত্যাশা করছি।’

তিনি আরও জানান, আসছে জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে মেয়ে আরশিয়া উমাইজাকে নিয়ে প্রায় দুই বছর পর ১৫ দিনের জন্য নিউইয়র্কে ঘুরতে যাচ্ছেন। সেখানে আত্মীয়স্বজন এবং বোন শাহানা হানিফের সঙ্গে আনন্দময় সময় কাটবে তার।

প্রসঙ্গত, শাহানা হানিফ তার মা-বাবার সঙ্গে নিউইয়র্কে থাকেন। ওখানেই তার জন্ম। শাহানা হানিফ অনেক দিন ধরেই ব্রুকলিনে রাজনীতিতে সক্রিয়। মাঠের রাজনীতিতে তিনি প্রগতিশীল যুব প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসেবে পরিচিত।

মঙ্গলবার (২২ জুন) সিটির নির্বাচনী প্রাইমারিতে ডিস্ট্রিক্ট থার্টি নাইন থেকে তিনি কাউন্সিলর পদের জন্য ডেমোক্রেটিক পার্টি থেকে নির্বাচিত হন তিনি। নিউইয়র্ক সিটির চূড়ান্ত ভোট গ্রহণ হবে চলতি বছরের ২ নভেম্বর। মঙ্গলবারের প্রাইমারি নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থী নিজ নিজ দল থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার টিকিট পাবেন।

এই প্রাইমারি নির্বাচনের মাধ্যমে ডেমোক্রেট অধ্যুষিত নিউইয়র্ক স্টেট এসেম্বলি ও সিটি কাউন্সিলের বিভিন্ন পদে ডেমোক্রেট পার্টির প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়। ডেমোক্রেট নিয়ন্ত্রিত নিউইয়র্কে পার্টির মনোনয়ন পাওয়া মানেই ওই পদের জন্যও বিজয় নিশ্চিত হওয়া।

এলএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]