সীতাকুণ্ডে আগুন: শোবিজ অঙ্গনে শোক

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৫ পিএম, ০৫ জুন ২০২২

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে আগুন লাগে শনিবার রাতে। পরিস্থিতি সামাল দিতে তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে ছুটে যান ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। এখন প্রায় ১৫ ঘণ্টা পেরিয়ে গেছে। কিন্তু নিয়ন্ত্রণে আসেনি আগুন। উল্টো দীর্ঘ হচ্ছে লাশের সারি।

শোকের চাদরে ঢেকে গেছে গোটা দেশ। সেই শোকে কাতর হয়েছেন শোবিজ অঙ্গনের তারকারাও। সামাজিক মাধ্যমে সাহায্য চেয়ে, শোক জানিয়ে নানা রকম পোস্ট করছেন তারকরা।

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান ফেসবুকে পোস্টে লিখেছেন, ‘চট্টগ্রামের জন্য প্রার্থনা।’

অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা তার ফেসবুকে সীতাকুণ্ডে বিএম ডিপোতে আগুনের একটা ছবি দিয়ে পোস্টে লিখেছেন, ‘চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিপুল পরিমাণ রক্তের প্রয়োজন। দয়া করে তাদের সাহায্যে আসুন।’

চলচ্চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী তার ফেসবুকে একটা ভিডিও নিউজ শেয়ার করে লিখেছেন, ‘কি ভয়াবহ!!!’

ছোট পর্দার অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী গতকাল রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম ডিপোতে আগুনের পর বিস্ফোরণ ঘটনার ফেসবুকে প্রথম পোস্টে লিখেছেন, ‘অসংখ্য অ্যাম্বুলেন্স জরুরি প্রয়োজন। চট্টগ্রামের সবকটি সরকারি, বেসরকারি হসপিটালের অ্যাম্বুলেন্স ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে দ্রুত সীতাকুণ্ডে যেতে বলা হচ্ছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ব্যাপক রক্তের প্রয়োজনও হতে পারে। স্থানীয়রা প্লিজ রক্তদানে চমেকে আসুন। সবাই দোয়া করুন সীতাকুণ্ড এলাকার বাসিন্দাদের জন্য।’

ফেসবুকে আরও একটি পোস্ট দিয়ে মেহজাবীন লেখেন, ‘আমাদের ফায়ার ফাইটারদের স্যালুট’।

চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক তার ফেসবুক পোস্ট লিখেছেন, ‘পানির ওপর হাঁটলেও জুতায় আগুন ধরে যাচ্ছে। সীতাকুণ্ডে। আল্লাহ মাফ করুন।’

অভিনেত্রী নাবিলা ইসলাম তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘ক্যান্টনমেন্টে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল খুলে দেওয়া হয়েছে। কিছু ডোনার ওদিকে যান। সবাই চট্টগ্রাম হাসপাতালে ভিড় করলে সামরিক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হতাহতরা সংকটে পড়বে।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘চট্টগ্রাম মেডিকেলে প্রচুর ভিড়। কয়েক মিনিট পরপর একাধিক এম্বুলেন্স ঢুকছে। র্যাবের গাড়ি করেও হতাহত আসতেছে। ভিড়ের কারণে ঢুকতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ভিড় না বাড়িয়ে কাজ সেরে চলে যান। প্রচুর পানি লাগতেছে। হতাহতরা আগুনে পোড়ার কারণে ক্ষতস্থানে পানি ঢালা লাগতেছে, খাইতেও লাগতেছে। সাথে করে পানির বোতল নিয়ে আসুন।

পজিটিভ গ্রুপের চেয়েও নেগেটিভ গ্রুপের রক্ত বেশি লাগতেছে। পজিটিভ গ্রুপের রক্তদাতারা বেশিক্ষণ থেকে ভিড় বাড়ানোর দরকার নাই। ব্যাথানাশক প্যাথেডিন লাগতেছে বেশি বেশি। যারা যাইতেছেন। তারা পারলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। স্বেচ্ছাসেবীদের হাতে তুলে দিয়ে চলে আসলেই হবে।’

তাছাড়াও অভিনেতা ওমর সানী, আরিফিন শুভ, তমা মির্জা, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, জিয়াউল হক পলাশ, ইমরান মাহমুদুলসহ শোবিজের প্রায় তারকাই আহতদের রক্তদানের জন্য স্থানীয়দের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এমআই/এলএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।