নতুন করে চীন-ভারতের সংঘর্ষ, দু’পক্ষেই ক্ষয়ক্ষতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৩ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২১

বিতর্কিত সীমান্তে নতুন করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছিল চীন এবং ভারতের সেনাবাহিনী। ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে ওই সংঘর্ষের খবর নিশ্চিত করে জানানো হয়েছে যে, সংঘর্ষের ঘটনায় দু'পক্ষেরই বেশ কয়েকজন সেনা সদস্য আহত হয়েছে।

তিনদিন আগে সিকিমের উত্তরাঞ্চলে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলেও এ বিষয়ে সোমবার ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হলো। এর আগে গত বছরের জুনে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকার স্কিরমিশে ভয়াবহ সংঘাতে কমপক্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়। তবে ওই সংঘর্ষের পর চীনের পক্ষ থেকে হতাহত সেনাদের বিষয়ে কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

গালওয়ানে ভারত এবং চীনা সেনাবাহিনীর ওই সংঘর্ষের রেশ কাটতে না কাটতেই সিকিম সীমান্তে নতুন করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ল দুই দেশের সেনাবাহিনী। ভারতীয় সেনা সূত্রের খবর অনুযায়ী, সিকিম দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছিল একদল চীনা সেনা। কিন্তু ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রবল বাধায় শেষ পর্যন্ত পিছু হঠতে বাধ্য হয় তারা। সংঘর্ষে দু’পক্ষেরই বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

সেনা সূত্র জানিয়েছে, গালওয়ানে সংঘর্ষের মতোই গত সপ্তাহে উত্তর সিকিম সীমান্তের নাকু লা এলাকা দিয়ে ভারতে ঢোকার চেষ্টা চালিয়েছিল চীনা সেনারা। সে সময় আবহাওয়া খারাপ ছিল। সেই সুযোগে ভারতের ভূখণ্ডে প্রবেশের চেষ্টা করে তাররা। কিন্তু ভারতীয় বাহিনী তাদের প্রবল ভাবে বাধা দেয়। ফলে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। চীনের অন্তত ২০ জন সদস্য ওই সংঘর্ষে জখম হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। অপরদিকে, ভারতের ৪ জওয়ান আহত হয়েছে।

ওই সংঘর্ষের পর থেকেই ওই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। খারাপ আবহাওয়ার মধ্যেও সীমান্তে কড়া নজরদারি চালাচ্ছেন ভারতীয় জওয়ানরা। গালওয়ানের সংঘর্ষের পর নাকু লার ওই ঘটনায় ভারত-চীন সীমান্ত সংঘাত নতুন করে ভিন্ন মাত্রা পেল।

টিটিএন/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]