বাংলাদেশ সীমান্তে অত্যাধুনিক কাঁটাতারের বেড়া দিচ্ছে ভারত

জ্যোতির্ময় দত্ত জ্যোতির্ময় দত্ত , পশ্চিমবঙ্গ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৮:১৭ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২২
ছবি : সংগৃহীত

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে অত্যাধুনিক কাঁটাতারের বেড়া দিচ্ছে বিএসএফ। কেউ এসব বেড়া সহজে অতিক্রম করতে পারবেন না। এরই মধ্যে এই বেড়ার কাজ শুরু করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী।

মঙ্গলবার বিএসএফ-এর উত্তরবঙ্গের ফ্রন্টিয়ারের আই জি অজয় সিং এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পাশাপাশি তিনি আরও জানান, পুরোনো কাঁটাতারের পরিবর্তন করার উদ্যোগও নিয়েছে বিএসএফ। তাছাড়া নারী কনস্টেবল নিয়ে তৈরি করা হচ্ছে বিএসএফ উইমেন বেন্ড।

জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক সীমান্ত রয়েছে নয়শ ৩৬ দশমিক ৪১ কিলোমিটার। যার মধ্যে প্রায় ১০০ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে কাঁটাতার বিহীন। ওই সীমান্ত দিয়ে চোরাচালানের ঘটনা ঘটে। তাই এবার ওই সীমান্তে অত্যাধুনিক বেড়া লাগাতে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বিএসএফ। চলতি বছরে এসব সীমান্তে অ্যান্টি কাটা ও অ্যান্টি ক্লাইম্ব বেড়া লাগানোর জন্য প্রায় ১৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

বিএসএফের উত্তরবঙ্গের আই জি অজয় সিং বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ১০০ কিলোমিটারে কাঁটাতার না থাকায় ওই জায়গায় বিশেষ নজরদারি চালাতে হতো। তবে এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকার যেহেতু টাকা বরাদ্দ করেছে তাই ওই কাঁটাতারহীন সীমান্তে অত্যাধুনিক বেড়া লাগানো হবে। এর ফলে সীমান্তে চোরাচালান ও অনুপ্রবেশ কিছুটা হলেও বন্ধ করা যাবে।

আই জি আরও বলেন, পাচারকারীরা সীমান্তে অত্যাধুনিক মোবাইল নেটওয়ার্ক ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের অবৈধ কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। বিএসএফ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। পাশাপাশি ৯৫০ জন নারী কনস্টেবলকে আলাদা করে নিয়োগ করা হয়েছে।

প্রশিক্ষণ শেষে সীমান্ত এলাকায় যেখানে তাদের প্রয়োজন হবে সেখানে নিয়োগ করা হবে। তাছাড়া তাদের মধ্যে থেকে বেশ কয়েক জনকে বেছে আলাদা নারী ব্যান্ড তৈরি করা হবে। শুধু তাই নয় সীমান্তবর্তী এলাকায় নজরদারিতে বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। লাগানো হয়েছে অত্যাধুনিক সিসিটিভি ক্যামেরা।

এমএসএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]