নকল প্রসাধনী কারখানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, তিনজনের কারাদণ্ড

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩৯ এএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০

রাজধানীর চকবাজার থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল প্রসাধনী সামগ্রী তৈরির অপরাধে কারখানার তিন শ্রমিককে কারাদণ্ড প্রদান করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল হক পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মো. ইমন (২২), মো. জাকির (২০) ও মো. আজাহার (২৩)। তাদের প্রত্যেককে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।অভিযান শেষে কারখানাটি সিলগালা করে দেয়া হয়।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) বেলা ১টার দিকে চকবাজারের ছোট কাটারা এলাকার একটি বাসায় এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে বিপুল পরিমাণ নকল প্রসাধনী সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, চকবাজারের ছোট কাটারা এলাকার ওই বাসার মধ্যে সুগন্ধযুক্ত কেমিক্যাল ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল হেয়ার অয়েল, প্যারাস্যুট ও কিউট নারিকেল তেল তৈরি করে মোড়ক লাগিয়ে সেগুলো বাজারজাত করত।

অভিযানে নকল প্যারাস্যুট নারিকেল তেল ২০০ মি.লি. পরিমাপের ৩৬০ বোতল, ১০০ মি.লি. পরিমাপের ৭২ বোতল, ১০০ মি.লি. পরিমাপের ২৫টি খালি বোতল, নকল ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল ১৮০ মি.লি. পরিমাপের ১০০ বোতল, নকল কিউট নারিকেল তেল ১০০ মি.লি. পরিমাপের ৩০ বোতল, ২ হাজার পিস বোতলের ক্যাপ এবং কেমিক্যালসহ দুইটি জার উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযানে নকল প্রসাধনী তৈরির এ কারখানাটি সিলগালা করে দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। কারাদণ্ডপ্রাপ্তদের জেল হাজতে পাঠানোর জন্য চকবাজার থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এমইউ/এআরএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]