রশিদ খানের মন্তব্যে হাসির রোল সোশ্যাল মিডিয়ায়

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৩ পিএম, ১৩ জুলাই ২০২০

আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রশিদ খান সম্প্রতি মন্তব্য করেছেন, ‘আফগানিস্তান বিশ্বকাপ জিতলে তবেই বিয়ে করব।’ যেন ধনুর্ভঙ্গ পণ। আফগানরা বিশ্বকাপ না জিতলে বিয়েই করবেন না তিনি। দেশকে ভালবেসেই হয়তো এমন কথা বলেছেন এই আফগান স্পিনার।

কিন্তু তার এই মন্তব্য নিয়ে সোশ্যাল দুনিয়ার হাসির রোল পড়ে গেছে। বিদ্রুপে বিদ্রুপে ভাসিয়ে দিচ্ছে সোশ্যাল দুনিয়া বাসিন্দারা। এ ধরনের বিদ্রুপের বিষয়টা হয়তো স্বপ্নেও ভাবতে পারেননি তিনি। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়াকে কে আটকাবে? রীতিমতো বলিউড কিং সালমান খানের সঙ্গে রশিদ খানের তুলনা টেনেছেন তারা।

হাসির রোল পড়ার কারণও আছে। ক্রিকেট বিশ্বে একেবারেই নতুন নাম আফগানিস্তান। যদিও বেশ উদীয়মান এবং আন্তর্জাতিক মানের বেশ কিছু ক্রিকেটারও জন্ম দিয়েছে তারা।

Rashid

কিন্তু দেশটি এখনও পর্যন্ত খেলেছে মাত্র দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপে (২০১৫ এবং ২০১৯)। কিন্তু এই দুই বিশ্বকাপে ভালো কিছুই করতে পারেনি তারা। একই সঙ্গে চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও খেলেছে রশিদ খানের দেশ। সাফল্যের ঘর শূন্য।

তবুও তরুণ ক্রিকেটারদের নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্রুত উঠে আসার ইঙ্গিত দিচ্ছে তারা। তাবৎ বড় শক্তিগুলোর বিরুদ্ধে খুব আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে খেলতে দেখা গেছে রশিদ খানদের। শুধু তাই নয়, অন্য দলের অভিজ্ঞ বোলারদের পেছনে ফেলে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বোলারদের তালিকায় শীর্ষস্থানটি রশিদ খানেরই দখলে।

সেই রশিদ খানকেই এক সাক্ষাৎকারে বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আফগানিস্তান একবার ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতুক। তারপরই বাগদান আর বিয়ে করব।’

তবে আফগান স্পিনারের মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়ে যায় হাসি-ঠাট্টা। অদূর ভবিষ্যতে আফগানিস্তান বিশ্বকাপ জিততে পারে, আফগানদের এমন কোনও সম্ভাবনাই দেখেন না ক্রিকেটভক্তরা। সে কারণেই বিদ্রুপের মুখে পড়তে হলো ২১ বছর বয়সী এই স্পিনারকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ কেউ জিজ্ঞাসা করে বলেন, রশিদ কি নতুন সালমান খান হবেন? অনেকে আবার রশিদের বয়স অনেকখানি বাড়িয়ে ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ২০৫০ সালেও রশিদ বসে রয়েছেন; কিন্তু আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ জেতা হলো না, বিয়েটাও করতে পারছেন না। কেউ কেউ রশিদ খানের মৃত্যুর পর কঙ্কাল জুড়ে দিয়েছেন, আফগানিস্তানর বিশ্বকাপ জয়ের সময় হিসেবে। যদিও পুরোটা মজার ছলেই লিখছেন নেটিজেনরা। তবু, তাতে ও তো জড়িয়ে আছে বিদ্রুপ আর বিদ্রুপ।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]